মাঝ আকাশে হোটেল, ৫০০০ যাত্রী নিয়ে ভাসবে এই বিমান

নিজস্ব প্রতিবেদন : এই বিশ্বে আশ্চর্য আশ্চর্য জিনিসের অভাব নেই। এ সকল আশ্চর্য জিনিসের মধ্যে আবার অনেকের মধ্যে স্বপ্ন ভাসমান হোটেলে প্রিয়জনকে নিয়ে সময় কাটানোর। এরকম স্বপ্ন যারা দেখে থাকেন তাদের সেই স্বপ্ন বাস্তবায়িত করার ক্ষেত্রে আসছে এক্কেবারে নতুন প্রযুক্তি।

এবার যে প্রযুক্তি আনা হচ্ছে তাতে ফ্লাইং হোটেলের সংজ্ঞা বদলে যাবে। আস্ত একটি বিমান এবার হোটেল রূপে দেখা যাবে। যদিও সেই বিমান শূন্যে ভাসলেও চলমান হবে না। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যাতে এই ধরনের ভাসমান হোটেলের নকশা দেখা যাচ্ছে।

এযাবৎ এক জায়গা থেকে অন্য জায়গা যাওয়ার ক্ষেত্রে বিমান ব্যবহার করা হলেও এবার ভাসমান হোটেল তৈরি করার ক্ষেত্রে বিমান ব্যবহার করা হবে বলে জানা গিয়েছে। তবে এবার এই নতুন ধারা আসার ফলে বদলে যাচ্ছে ভাসমান হোটেলের চিত্র। এই ধরনের দৈত্যাকার বিমানকে এবার বিলাসবহুল ভাসমান হোটেল হিসাবে ব্যবহার করা হবে।

জানা যাচ্ছে স্কাই ক্রুজ নামক এই বিশাল যে বিমানটি তৈরি করা হচ্ছে তাতে ৫ হাজার মানুষ একসঙ্গে ধরবে। পারমাণবিক সংযোজন দ্বারা পরিচালিত হবে এই বিমান। এই বিমান এমনভাবে তৈরি করা হচ্ছে যাতে একবার আকাশে ভাসার পর বেশ কয়েক মাস পর্যন্ত মাঝ আকাশে ভেসে থাকতে পারবে।

নতুন যাত্রীদের এই বিমানে নিয়ে যাওয়া আসার ক্ষেত্রে ডক তৈরি করা হবে। যেখানে এই স্কাই ক্রুজ ছাড়াও অন্যান্য বিমান ওঠানামা করতে পারবে। এই বিমানটি এমনভাবে ডিজাইন করা হচ্ছে যাতে এটিকে অবতরণ করতে না হয়। এর জন্য ২০টি ইঞ্জিন রাখা হচ্ছে। যাত্রীদের উঠানামা থেকে শুরু করে বিমানের রক্ষণাবেক্ষণ সমস্ত কিছুই মাঝ আকাশে করা হবে। সবচেয়ে আশ্চর্য বিষয় হলো এই স্কাই ক্রুজ চালানোর জন্য কোন পাইলটের প্রয়োজন হবে না। এখানে থাকবে হোটেল, রেস্তোরাঁ, সুইমিং পুল, জিম, শপিং মল, সিনেমা হল সমস্ত কিছু।