নারদ কান্ডে ৪ জন গ্রেপ্তার হতেই মুখ খুললেন ম্যাথু স্যামুয়েল

নিজস্ব প্রতিবেদন : দীর্ঘ পাঁচ বছর পর নারদ কান্ডে সোমবার রাজ্যের দুই মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম এবং সুব্রত মুখোপাধ্যায় সহ মদন মিত্র ও শোভন চট্টোপাধ্যায় গ্রেপ্তার হতেই মুখ খুললেন ম্যাথু স্যামুয়েল। ২০১৪ সালে ম্যাথু স্যামুয়েল এবং তার সঙ্গী অ্যাঞ্জেল আব্রাহাম এই স্টিং অপারেশন করেছিলেন। আর এদিনের এই গ্রেপ্তারিতে ম্যাথু স্যামুয়েল খুশি হন, তবে একাধিক প্রশ্ন রাখলেন।

সোমবার চারজন গ্রেপ্তার হওয়ার পরেই একটি ভিডিও বার্তায় বলেন, “অনেকদিন ধরেই বিচার পাওয়ার জন্য অপেক্ষা করছিলাম। এই মাত্র জানতে পারলাম সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ববি হাকিম সহ কয়েকজন সিনিয়র তৃণমূল নেতাকে আটক করা হয়েছে। এই ভিডিও ফুটেজ ২০১৬ সালে প্রকাশ্যে এসেছিল। শেষ পর্যন্ত ফল পেলাম।”

পাশাপাশি তিনি বলেন, “বিচার পেতে একটু সময় লাগবে। তাই সবাইকে বলেছিলাম আমি অপেক্ষা করতে রাজি। শেষ পর্যন্ত সেই অপেক্ষার ফল পাওয়া গেলো।”

গ্রেপ্তারি নিয়ে সন্তুষ্ট হওয়ার পাশাপাশি তিনি শুভেন্দু কেন বাদ সেই প্রশ্ন তোলেন? তার প্রশ্ন, “শুভেন্দু অধিকারীকে কেন গ্রেফতার করা হবে না? তিনিও তো আমার কাছ থেকে টাকা নিয়েছেন। আর সেই টাকা নেওয়ার ভিডিও পর্যন্ত রয়েছে। সেই তথ্য সিবিএইকেও দেওয়া হয়েছে। বিচার সবার জন্য সমান হওয়া উচিত।”

আরও পড়ুন :

তবে এই ভিডিওতে স্যামুয়েলকে বিজেপির বিধায়ক মুকুল রায়ের নাম নিতে দেখা যায়নি। এই প্রসঙ্গে অবশ্য পরে তিনি জানান, “মুকুল রায় টাকা নেননি। মুকুল রায়ের টাকা নেওয়ার কোন ভিডিও ফুটেজ নাই। মুকুল রায়ের হয়ে টাকা নিয়েছেন আইপিএস অফিসার এস এম এইচ মির্জা।”