Bandel Station: লন্ডনও লজ্জা পাবে! কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে এমনই সাজানো হবে ব্যান্ডেল স্টেশনকে

Prosun Kanti Das

Published on:

Bandel station will be renovated at a cost of crores of rupees: চলছে ব্যান্ডেল স্টেশন (Bandel Station) সংস্কারের কাজ। কর্তৃপক্ষের দাবী কাজ শেষ হলে নতুন ব্যান্ডেল স্টেশনের রূপ মুগ্ধ করবে সাধারণ মানুষকে। নতুন ব্যান্ডেল স্টেশনে নামলে আপনার মনে হতে পারে আপনি হয়তো ভারতে নয়, অন্য কোন বিদেশের রেলওয়ে স্টেশনে চলে এসেছেন। পরিষেবা দেখে লজ্জা পেয়ে যেতে পারে লন্ডনও। সম্প্রতি ব্যান্ডেল রেলস্টেশনটির সংস্কারের কাজ তদারকি করতে গিয়েছিলেন স্বয়ং বর্তমান রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। রেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, তারা চাইছে ব্যান্ডেল স্টেশনটিকে বিশ্বমানের সেরা স্টেশন হিসেবে প্রস্তুত করতে। সম্পূর্ণ কাজ শেষ হবার পর একেবারেই পাল্টে যাবে ব্যান্ডেল স্টেশনের চেহারা।

ব্যান্ডেল স্টেশনটি (Bandel Station) শিয়ালদা-জলপাইগুড়ি, হাওড়া-জলপাইগুড়ি এবং হাওড়া-দিল্লি মেন লাইনের ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ১ টি স্টেশন। যদিও এই লাইনের বেশিরভাগ যাত্রীরাই ব্যবহার করেন লোকাল ট্রেনগুলিকে। তবে এক্সপ্রেস ট্রেনের পরিমাণ আরো বাড়ানোর চেষ্টা চলছে ব্যান্ডেল স্টেশন থেকে। বর্তমানে ব্যান্ডেল স্টেশন থেকে প্রতিদিন যে সমস্ত যাত্রীরা যাতায়াত করেন তারা ৮০ শতাংশ ব্যবহার করেন লোকাল ট্রেন। খুব শীঘ্রই স্টেশন চত্বরে তৈরি করা হবে কোচিং ডিপো। ডিপোটি তৈরি করার পর আরও ৫-৬ টি এক্সপ্রেস ট্রেন চালু করা সম্ভব হবে ব্যান্ডেল স্টেশন থেকে। তবে এই পরিষেবা কবে থেকে চালু করা সম্ভব হবে, সে বিষয়ে পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষ এখনো সঠিক কোন তথ্য জানায়নি। আপাতত ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা হিসেবেই রয়েছে এই বিষয়টি।

ভারতের বর্তমান রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব ব্যান্ডেল স্টেশন (Bandel Station) সংস্কারের কাজ কতদূর এগিয়েছে তা তদারকি করতে পৌঁছে গিয়েছিলেন বান্ডেল স্টেশনে। এরপর পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে ব্যান্ডেল স্টেশন সংস্কার সংক্রান্ত বেশ কিছু তথ্য প্রকাশ্যে আনা হয়েছে। ব্যান্ডেল স্টেশন এরিয়াতে মোট ২৩ টি ডায়মন্ড ক্রসিং রয়েছে। এর মধ্যে ১৯ টি তুলে দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। ব্যান্ডেল স্টেশনে এই মুহূর্তে ৬ টি প্ল্যাটফর্ম রয়েছে। সেই প্ল্যাটফর্মগুলিকে আরো বাড়ানো হবে বলেও জানা গেছে। পূর্ণদৈর্ঘ্যের প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা হবে যাতে এক্সপ্রেস ট্রেনগুলি প্রত্যেকটা স্টেশনে এসেই দাঁড়াতে পারে। আরো ৩ টি অতিরিক্ত পূর্ণদৈর্ঘ্যের প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন 👉 Digha Train: দীঘা যাওয়ার ট্রেন নিয়ে নয়া ঘোষণা, এতদিন পর্যন্ত আর ঢুকবে না হাওড়া

সংস্কারের পর ব্যান্ডেল স্টেশনটি (Bandel Station) একেবারে নতুন রূপে ধরা দেবে বলে জানা গেছে। নতুন স্টেশনে ট্রেন ছাড়া এবং ট্রেন আসার জন্য আলাদাভাবে নতুন কিছু লাউঞ্জ তৈরি করা হচ্ছে। এছাড়া স্টেশনের মধ্যে থাকবে ২০ টি এসক্যালেটর এবং ১২ টি লিফট। স্টেশন চত্বরে ১ টি আলাদাভাবে রেল ভবন তৈরি করার পরিকল্পনাও রয়েছে কর্তৃপক্ষের। সম্পূর্ণ ভবনটি হবে ২৩,৪৭৩ স্কয়ার ফুটের। এরমধ্যে ১৫,৭৯১ স্কয়ার ফুটের পার্কিং এরিয়া রাখা হবে। এছাড়া স্টেশনের মধ্যেই থাকবে ফুড প্লাজা। বলতে গেলে সব রকম সুযোগ-সুবিধাই পাওয়া যাবে ব্যান্ডেল স্টেশন চত্বরে। যাত্রীদের সুবিধার্থে যা যা করার প্রয়োজন সবই করবে রেল কর্তৃপক্ষ।

আপনি ঠিক কোন পরিষেবাটা চান? প্রায় সবকিছুই পেয়ে যাবেন ব্যান্ডেল স্টেশনের (Bandel Station) মধ্যেই। এটিএম থেকে শুরু করে ওষুধের দোকান সব রকম জরুরি পরিষেবা থাকবে স্টেশনেই। এছাড়াও থাকছে উন্নত মানের টয়লেট। থাকবে হাই স্পিড ইন্টারনেট পরিষেবা। ফুড প্লাজার পাশাপাশি পেয়ে যাবেন অন্যান্য ফুড কোর্ট বা সাধারণ দোকানও। রেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, সব রকম আধুনিক পরিষেবা দেওয়া হবে কিন্তু একেবারেই দূষণমুক্ত ভাবে। সম্পূর্ণ পরিবেশ বান্ধব উপায় তৈরি করা হচ্ছে নতুন ব্যান্ডেল স্টেশনটিকে। থাকছে সোলার প্যানেল এমনকি বৃষ্টির জল সংরক্ষণের ব্যবস্থাও। কি! স্টেশনটিকে একবার দেখতে ইচ্ছে করছে, তাই তো? শুধু আপনি বা আমি নই, নতুন ব্যান্ডেল স্টেশনের রূপ দর্শনের জন্য অপেক্ষা করছে গোটা রাজ্যবাসী।