ক্রিকেট বিশ্বকাপেও লাল কার্ড! আসলে নিয়মটা কি!

নিজস্ব প্রতিবেদন : ফুটবল খেলায় লাল কার্ড, হলুদ কার্ড আছে, সে তো স্বাভাবিক, কিন্তু এবার ক্রিকেট খেলাতেও চালু হচ্ছে লাল কার্ডের ব্যবস্থা। কিন্তু প্রশ্ন হল ক্রিকেট খেলাতে এই লাল কার্ড ব্যবহার হবে কিভাবে!

২০১৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে সকলকে অবাক করে এবার ব্যবহার করা হবে লাল কার্ড। বিশ্বকাপের মাঠে অশালীন আচরণ রুখতে বদ্ধপরিকর আইসিসি, আর সে কারণেই এবার মাঠে আম্পায়ারের পকেটে পুঁড়ে দেওয়া হচ্ছে লাল কার্ড আইসিসি তরফ থেকে। কোন ক্রিকেটার মাঠে অশালীন আচরণ করলে তাকে দেখতে হতে পারে লাল কার্ড, বের হতে পারে মাঠ থেকে। শুধু তাই নয় যে দলের খেলোয়াড় লাল কার্ড দেখবে তার বিপক্ষ দল ৫ রান বোনাস হিসাবে পাবে। এছাড়াও একগুচ্ছ নিয়ম পরিবর্তন হচ্ছে ক্রিকেটে এই লাল কার্ড আসার দরুন।

ডাউনলোড মোবাইল অ্যাপBanglaXp

খেলার মাঠে ক্রিকেটারদের অশালীন আচরণকে চার ভাগে ভাগ করেছে আইসিসি। মাঠে কোনরকম অশালীন আচরণ করলে ক্রিকেটার চারটি স্তরের ভিত্তিতে শাস্তি ভোগ করবে।

প্রথম ভাগ : অকারনে আম্পায়ারের সামনে বারবার আপিলের ভঙ্গি দেখান অথবা আম্পায়ারের চূড়ান্ত সিদ্ধান্তকে মেনে না নেওয়ার মত ঘটনা ঘটলে আম্পায়ার প্রথমে সতর্ক করতে পারেন। কিন্তু পরে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হলে শাস্তি হিসাবে বিপক্ষ দলকে ৫ রান বোনাস দেওয়া হতে পারে।

দ্বিতীয় ভাগ : খেলার সময় কোন খেলোয়াড়ের দিকে ইচ্ছাকৃত ভাবে বল ছোঁড়া অথবা রান নেওয়ার সময় ইচ্ছাকৃতভাবে বাধা দেওয়া বা ধাক্কা দেওয়া ইত্যাদির মতো ঘটনা ঘটলো বিপক্ষ দলকে একই ভাবে ৫ রান বোনাস দেওয়া হবে।

তৃতীয়ত : মাঠে আম্পায়ারকে ভয় দেখানো অথবা কোন কর্তা বা দর্শকদের আক্রমণের মতো হুমকি দেওয়া হলে শাস্তি হিসাবে বিপক্ষ দল ৫ রান বোনাস পেতে পারে অথবা দোষী খেলোয়াড়কে নির্দিষ্ট হয়ে অভারের জন্য মাঠ থেকে বের করে দিতে পারে আম্পায়ার।

চতুর্থত : আম্পায়ারকে হুমকি অথবা মাঠে কোনরকম হিংসাত্মক ঘটনা ঘটালে সেই খেলোয়াড়কে বাকি সময়ের জন্য মাঠ থেকে বের করে দেওয়া মত পদক্ষেপ নিতে পারে আম্পায়ার। সাথে সাথে বিপক্ষ দলকে ৫ রান বোনাস দেওয়ার মতো পদক্ষেপ নিতে পারে আম্পায়ার।