সামনেই দাতা সাহেব মেলা : মেলায় একগুচ্ছ চমক প্রশাসনের

ফের প্লাস্টিক মুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে পাথর চাপুরীর দাতা বাবা মেহেবুব শাহ ওয়ালী (রঃআঃ) পবিত্র ঊরুস মোবারক ও মেলা। আগামী ২৪ শে মার্চ, এর উদ্বোধন করবেন পশ্চিমবঙ্গ সংখ্যালঘু উন্নয়ন ও মাদ্রাসা শিক্ষা দফতরের সেক্রেটারি পি বি সালিম। উপস্থিত থাকবেন জেলা সংখ্যালঘু আধিকারিক শামস তবরেজ আনসারী সহ জেলার অন্যান্য উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানাা গিয়েছে, বিগত বছরের মত এবারও পাথর চাপুরীর ১২৭ তম পবিত্র ঊরুস মোবারক ও মেলা প্লাস্টিক মুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। দেশ বিদেশের প্রায় ৬ লক্ষাধিক ধর্ম প্রান জাতি, বর্ন, ধর্ম মানুষ উপস্থিত হবেন বলে অনুমান করা হচ্ছে। মেলার পরিচ্ছন্নতা রাখতে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে। মেলাকে এবছর প্লাস্টিক মুক্ত রাখতে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহন করা হচ্ছে।

প্লাস্টিক গ্লাস, কাপ, থার্মোকলের পাতা, ক্যারি ব্যাগ ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হয়েছে। স্থানীয় ক্লাবকে বিশেষ দায়িত্ব দেওয়া হবে এই প্লাস্টিক মুক্ত রাখার ব্যাপারে। এছাড়া কয়েকশ সাফাই কর্মীর সঙ্গে সঙ্গে প্রচুর ডাস্টবিন রাখা হবে। মেলা এলাকাই যাতে ধুলো না উড়ে তার জন্য গাড়িতে করে জল দেওয়া হবে। প্রায় ৫০০ টি অস্থায়ী শৈচালয় নির্মাণ করা হচ্ছে পর্যাপ্ত জলের ব্যবস্থা সহ। ওয়াচ টাওয়ার, সিসিটিভি ক্যমেরা ও ড্রোন ক্যামেরার সাহায্যে নজর দারী করা হচ্ছে। নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য সব রকম ব্যবস্থা করা হবে। মেলা প্রাঙ্গণের আলোকসজ্জা আগত পর্যটকদের নজর কাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। চুরি, পকেট মারি রুখতে সাদা পোশাকের ও মহিলা পুলিশ পর্যাপ্ত সংখ্যায় রাখা হবে। জেলা সংখ্যালঘু আধিকারিক শামস তবরেজ আনসারী বলেন, “পাথরচাপুরীতে আগত পুণ্যার্থীদের কথা মাথায় রেখে সমস্ত ধরনের আয়োজন করা হচ্ছে যাতে কোন অসুবিধা না হয়। পরিবেশ প্লাস্টিক মুক্ত আগেই ঘোষণা করা হয়েছে। শৌচালয় ও পর্যাপ্ত পানীয় জল ব্যবস্থা করা হচ্ছে।”