করদাতাদের জন্য স্বস্তির খবর, আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার সময়সীমা বাড়ালো কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিবেদন : আয়কর দপ্তরের তরফ থেকে করদাতাদের আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষ সময়সীমা দেওয়া হয়েছিল ৩০ সেপ্টেম্বর। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আয়কর রিটার্ন জমা না দেওয়া হলে পরবর্তীতে জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে ৫০০০ টাকা জরিমানার কোথাও বলা হয়েছে আয়কর আইনে। তবে এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রের তরফ থেকে স্বস্তি দেওয়া হল করদাতাদের। এক ধাক্কায় অনেকটাই বাড়ানো হলো আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষ সময়সীমা।

আয়কর দপ্তরের তরফ থেকে করদাতাদের আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার বিষয়টিকে আরও সহজ ও সরল করার জন্য তাদের ওয়েবসাইটের পরিবর্তন করা হয়। তবে এই পরিবর্তন করার পর প্রযুক্তিগত দিক দিয়ে নানান সমস্যা লক্ষ্য করা যায়। অধিকাংশ সময়ই করদাতারা তাদের কাজ করতে পারছেন না এই নতুন পোর্টালে। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই তৈরি হয়েছে বিতর্ক, এমনকি কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন একাধিকবার তলব করেছেন পোর্টালের দায়িত্বে থাকা সংস্থাকে।

পোর্টালে সমস্যা এবং বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে অর্থ দপ্তরের তরফ থেকে শুক্রবার বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হয়, আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষ সময়সীমা ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে বাড়িয়ে তা করা হচ্ছে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। সাধারণত প্রতি বছর ৩১ জুলাই শেষ দিন হিসাবে আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে নির্ধারণ করা হয়ে থাকে। তবে গত বছর অর্থাৎ করোনা সংক্রমণের সময় থেকে এই আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার সময়সীমা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র। আর সেই ধারাবাহিকতায় এবারও বজায় রাখল কেন্দ্র।

আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষ সময়সীমা চলতি বছর এই নিয়ে পরপর দু’বার বাড়ানো হলো কেন্দ্রের তরফ থেকে। প্রথম দফায় এই রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষ সময়সীমা ছিল ৩১ জুলাই। তবে পরে তা বাড়ানো হয় এবং করা হয় ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। আর এদিন এই সেট সময়সীমা আরও তিন মাস বাড়িয়ে বছরের শেষ দিন পর্যন্ত করা হলো।