Richest and Poorest MP: কেউ বা রাজা, কেউ বা ফকির! দেখে নিন দেশের গরিব আর বড়লোক সাংসদের সম্পত্তির ফারাক

The difference between the wealth of the poor and rich MPs in the country is surprising: সম্প্রতি সংসদ সদস্যদের (এমপি) সম্পত্তির বিবরণ প্রকাশ করা হয়েছে। আপনারা এই প্রতিবেদন থেকে দেশের গরীব এবং বড়লোক এমপিদের (Richest and Poorest MP) সম্পর্কে জানতে পারবেন। বিবরণ অনুযায়ী জানা যায় যে, ভারতের সবচেয়ে ধনী এমপি হলেন বন্দি পার্থ সারথী। তিনি তেলেঙ্গানা রাজ্য থেকে তেলুগু দেশম পার্টির (টিআরএস) এমপি। তার ঘোষিত সম্পত্তির পরিমাণ ৫৩০০ কোটি টাকা। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন আল্লা অযোধ্যা রামি রেড্ডি। তিনি অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্য থেকে ওয়াইএসআরসিপির এমপি। তার ঘোষিত সম্পত্তির পরিমাণ ২,৫৭৭ কোটি টাকা। তৃতীয় স্থানে রয়েছেন জয়া বচ্চন। তিনি মধ্যপ্রদেশ রাজ্য থেকে আম আদমি পার্টির (আপ) এমপি। তার ঘোষিত সম্পত্তির পরিমাণ ১০০১ কোটি টাকা।

গরিব এমপিদের তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছেন মহারাজা সানাজাওবা লিসেম্বা। তিনি মহারাষ্ট্র রাজ্য থেকে শিবসেনার এমপি। তার ঘোষিত সম্পত্তির পরিমাণ মাত্র ৪০ হাজার টাকা। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন সুভাষ চন্দ্র সার। তিনি পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের এমপি। তার ঘোষিত সম্পত্তির পরিমাণ মাত্র ১ লাখ টাকা। তৃতীয় স্থানে রয়েছেন কে. কে. রেড্ডি। তিনি অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্য থেকে ওয়াইএসআরসিপির এমপি। তার ঘোষিত সম্পত্তির পরিমাণ মাত্র ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা। আবার Association for Democratic Reform-এর রিপোর্ট বলছে রাজ্যসভার আরেক এমপি দেশের দরিদ্র এমপি। তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ মাত্র ৩.৭২ লাখ। তিনি আপ এমপি। অন্যদিকে, আপ মুখপাত্র সঞ্জয় সিং তাঁর সম্পদও যথেষ্টই কম। তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ মাত্র ৬.৬০ লাখ টাকা।

এই বিবরণ অনুযায়ী, ভারতীয় সংসদে ধনী ও গরিব এমপিদের (Richest and Poorest MP) মধ্যে বিস্তর ব্যবধান রয়েছে। সবচেয়ে ধনী এমপির সম্পত্তি সবচেয়ে গরিব এমপির সম্পত্তির তুলনায় প্রায় ১৩০০ গুণ বেশি। এই বিবরণ নিয়ে বিভিন্ন মহলে আলোচনা হচ্ছে। অনেকে মনে করছেন, ভারতীয় সংসদে ধনী ও গরিব এমপিদের মধ্যে এই বিস্তর ব্যবধান গণতন্ত্রের জন্য ক্ষতিকর। তারা মনে করছেন, ধনী এমপিরা তাদের সম্পদের প্রভাবে সংসদে প্রভাব বিস্তার করতে পারে।

অন্যদিকে, অনেকে মনে করছেন, এই বিবরণ প্রকাশ করা উচিত, তাহলেই দেশের ধনী এবং গরীব এমপিদের সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে (Richest and Poorest MP)। তারা মনে করছেন, এটি জনগণের কাছে এমপিদের সম্পদের সঠিক ধারণা দেবে।রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, টিআরএসের সব মিলিয়ে ৭জন এমপির মোট সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ৫৫৯৬ কোটি টাকা। আসলে সম্পত্তির নিরিখে কেউ যেন কারোর থেকে পিছিয়ে নেই। একেবারে যেন প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে গিয়েছে।

Analysis of Criminal Background, Financial, Education, Gender and other details of sitting MPs 2023 নামক রিপোর্টে এমপিদের সম্পর্কে চমকপ্রদ তথ্য সামনে এসেছে। সেইসব তথ্য সামনে আসলে আপনি অবশ্যই অবাক হবেন। দেখা যাচ্ছে ২২৫জন রাজ্য সভার এমপির মধ্যে ৭৫জন জানিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে ক্রিমিনাল কেস রয়েছে।