সোনার গয়না ভর্তি ব্যাগ টোটোয় ভুললেন স্বর্ণ ব্যবসায়ী, ফিরলো পুলিশী তৎপরতায়

সোনার গয়না শহরে এনেছিলেন পালিশ করাতে। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত এই সোনার গয়না ভর্তি ব্যাগটি ওই স্বর্ণ ব্যবসায়ী একটি টোটোতে ভুলে যান।

লাল্টু : সোনার একজোড়া পলা, একজোড়া পাঞ্জাবি রিং, বেশ কয়েকটি আংটি, কানের দুল ইত্যাদি গয়না নিয়ে বীরভূমের খয়রাশোল ব্লকের বাবুইজোর গ্রামের এক স্বর্ণ ব্যবসায়ী এসেছিলেন দুবরাজপুর। এই সকল সোনার গয়না তিনি শহরে এনেছিলেন পালিশ করাতে। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত এই সোনার গয়না ভর্তি ব্যাগ তিনি একটি টোটোতে ভুলে যান।

ঘটনার পরেই মাথায় হাত পড়ে যায় ওই স্বর্ণ ব্যবসায়ীর। বেশ কিছুক্ষণ খোঁজাখুঁজি করার পর তিনি দ্বারস্থ হন দুবরাজপুর থানার। দুবরাজপুর থানার পুলিশ ঘটনার কথা জানতে পেরে তড়িঘড়ি তদন্ত শুরু করে, আর তারপরেই কামাল। মাত্র কয়েক ঘন্টার মধ্যেই পুলিশ ওই লক্ষাধিক টাকার সোনার গয়না ভর্তি ব্যাগ উদ্ধার করে ওই স্বর্ণ ব্যবসায়ীর হাতে ফিরিয়ে দেয়।

ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার। বাবুইজোর গ্রামের এক স্বর্ণ ব্যবসায়ী মধুসূদন সেন এদিন দুবরাজপুরে আসেন নিজের চিকিৎসা করাতে। চিকিৎসার পাশাপাশি ভেবেছিলেন ঐসকল সোনার গয়না পালিশ করিয়ে বাড়ি ফিরবেন। কিন্তু অমনস্কতাবশত আব্দুল আজিজ নামে এক টোটো চালকের টোটোয় তিনি সেই ব্যাগ ভুলে গিয়েছিলেন।

পুলিশ এই ঘটনায় ওই সোনার গয়না ভর্তি ব্যাগ উদ্ধার করতে নেমে প্রথমেই সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ওই টোটো চালককে চিহ্নিত করেন। তারপর তার কাছে গিয়ে ব্যাগের কথা জিজ্ঞেস করলে, ওই টোটো চালক নির্দ্বিধায় জানান, ‘কেউ এই ব্যাগ ভুলে গিয়েছেন’। তার পরেই তিনি ওই ব্যাগ পুলিশের হাতে তুলে দেন।

টোটো চালক আব্দুল আজিজ জানিয়েছেন, “ব্যাগটি আমার টোটোতে ছিল। তবে আমি ওই ব্যাগ একবারের জন্যও খুলে দেখি নি। পুলিশ এসে জিজ্ঞাসা করলে আমি পুলিশের হাতে ওই ব্যাগ তুলে দিই।” ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই হারিয়ে যাওয়া সোনার গয়নার ব্যাগ ফেরত পেয়ে ওই স্বর্ণ ব্যবসায়ী মধুসূদন সেন দুবরাজপুর থানার পুলিশের প্রশংসায় পঞ্চমুখ।