বাবার বয়স ৭০, মায়ের ৫৪, যমজ সন্তানের জন্ম দিয়ে অসাধ্য সাধন দম্পতির

নিজস্ব প্রতিবেদন : যে বয়সে মানুষ সংসারের বেরা থেকে মুক্তি পেতে চান সেই বয়সে যমজ সন্তানের জন্ম দিয়ে অসাধ্য সাধন করলেন উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগরের দম্পতি। অশোকনগরের এই দম্পতি হলেন তপন দত্ত, যার বয়স ৭০ বছর এবং তার স্ত্রী রূপা দত্ত, যার বয়স ৫৪ বছর। তবে এই বৃদ্ধকালে এসে বাবা মা হওয়ার শখ কেন?

এর পিছনে রয়েছে মস্ত বড় এক কারণ। পেশায় তপন দত্ত একজন পুলিশ কর্মী। তিনি এবং তার স্ত্রী মূলত সন্তান শোকের যন্ত্রণা থেকেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী লক্ষ্যে পৌঁছাতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে। আসলে তাদের একমাত্র সন্তান অনিন্দ্য দত্ত ২০১৯ সালে ট্রেন দুর্ঘটনায় মারা যান। সন্তানকে হারিয়ে তারা দিশেহারা হয়ে পড়েন এবং সেই সন্তান শোকের যন্ত্রণা থেকে বের হতেই এমন সিদ্ধান্ত নেন।

এত বয়সে মা হওয়ার যে সিদ্ধান্ত তার জন্য অনেক কষ্ট সহ্য করতে হবে তা জানা ছিল। তবে তারপরেও তারা হাওড়ার বালির এক চিকিৎসকের পরামর্শে রূপা দত্ত গর্ভবতী হন। যদিও যখন অস্ত্রোপচারের প্রসঙ্গ আছে সেই সময় ওই চিকিৎসক ঝুঁকি নিতে পারেননি এবং তিনি অন্যত্র চিকিৎসা করানোর পরামর্শ দেন।

সেই মতো তপন দত্ত একটি বেসরকারি হাসপাতালে যান এবং সেখানে স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলেন। সেই বেসরকারি হাসপাতালের তত্ত্বাবধানে গত ১০ অক্টোবর যমজ সন্তান জন্ম দেন রূপা দত্ত। দুই সন্তানের মধ্যে একজন কন্যা ও একজন পুত্র। ১০ অক্টোবর যমজ সন্তানের জন্ম দেওয়ার পর ৩০ নভেম্বর তপন দত্ত তাদের অশোকনগরের বাড়িতে আনেন।

ওই দম্পতি তাদের যমজ সন্তানকে বাড়ি নিয়ে আসার পরিপ্রেক্ষিতে আত্মীয়-স্বজনরা ফুল দিয়ে সবকিছু সাজান এবং শঙ্খ ধ্বনি দিয়ে তাদের বরণ করে নেন। যদিও দত্ত দম্পতি তাদের বড় সন্তানকে হারানোর বেদনা ভুলতে পারবেন না, তবে সদ্যোজাতদের দেখে শান্তি মিলছে।