চলে গেলেন সদাহাস্য অভিনেতা চিন্ময় রায়

চলে গেলেন বিশিষ্ট অভিনেতা চিন্ময় রায়। রবিবার রাত দশটা নাগাদ তাঁর মৃত্যু হয় বলে জানা গিয়েছে। মৃত্যুর সময়ে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। রাতে খাওয়াদাওয়ার পরই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।

বেশ কয়েককাল ধরেই তিনি অভিনয় জগৎ থেকে দূরে ছিলেন। স্ত্রীর মৃত্যুর পর তাঁকে আর অভিনয় করতে দেখা যায়নি। পারিবারিক সূত্রের খবর, নিজের বাড়িতেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন চিন্ময় রায়। দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন তিনি।

গত বছর জুন মাসে তিনি ছাদ থেকে পড়ে গিয়ে মারাত্মক ভাবে জখম হয়েছিলেন। গুরুতর আহত অবস্থায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল জনপ্রিয় এই অভিনেতাকে। কী ভাবে পড়ে গিয়েছিলেন অভিনেতা, তা নিয়ে অনেক জলঘোলা হলেও সঠিক কারণ জানা যায়নি। তবে তার পর থেকেই বেশ ভেঙে পড়েছিল তাঁর শরীর।

চিন্ময় রায়ের স্ত্রী গত হয়েছেন অনেক দিন আগে। পরিবার বলতে রয়েছেন তাঁর এক মেয়ে এবং এক ছেলে। মেয়ে থাকেন চেন্নাইতে। তিনি কলকাতায় আসার পরেই চিন্ময়বাবুর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে বলে জানা গিয়েছে।

১৯৪০ সালের জানুয়ারি মাসে বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলায় তিনি জন্মগ্রহণ করেন। বাংলা ফিল্ম দুনিয়ায় সত্তরের দশকে পা রাখেন তিনি। অচিরেই সে সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা হয়ে ওঠেন। বহু সিনেমায় তাঁর কমেডি চরিত্রে অভিনয় আজও মনে রেখেছেন মানুষ।

থিয়েটারের মঞ্চ থেকে অভিনয় শুরু করে এক সময় সিনেমাতে দাপিয়ে অভিনয় করেছেন চিন্ময় রায়। তপন সিংহের ‘গল্প হলেও সত্যি’ দিয়ে শুরু করেই সবার নজর কাড়েন তিনি। এরপর ‘মৌচাক’, ‘হাটেবাজারে’, ‘ওগো বধূ সুন্দরী’, ‘বসন্ত বিলাপ’, ‘গুপী গাইন বাঘা বাইন’-এর মতো অসংখ্য ছবিতে তিনি দাপিয়ে অভিনয় করেছেন।