প্রথম গান গেয়ে রানু মণ্ডল কত পেলেন পারিশ্রমিক?

নিজস্ব প্রতিবেদন : তাঁর গলায় আছে সুর, তবে তাঁর ছিল না কোনো রেওয়াজ, ছিল না কোন অনুশীলন। গান শুনে শুনেই তা মনে রেখে দেন তিনি। গেয়ে ফেলেন সেই গান অনর্গল। তাঁর সেই গান শুনে মুগ্ধ আট থেকে আশি। তিনি স্বপ্নেও ভাবেননি তাঁর গান এভাবে সবাইকে মুগ্ধ করে তুলবে। আর তাকে পাথেয় করেই ভাগ্য চাকার বদল। তবে তার ভাগ্যে হয়তো লেখা ছিল এমনটাই। রানাঘাটের স্টেশনের ভবঘুরে জীবন থেকে মুম্বাইয়ের রেকর্ডিং স্টুডিও, রাণুর কাছে এ যেন এক স্বপ্ন উড়ান। এত বছরের অভাব অনটনের সংগ্রাম, অনিশ্চিত জীবনের পর তাঁর ভাগ্যের দরজা খোলে শুধুমাত্র সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে।

লতা মঙ্গেশকরের “প্যার কা নাগমা” গানটি গেয়ে রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ায় সেলিব্রেটি হয়ে ওঠেন তিনি, সেই গান সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই। নেট দুনিয়ার নেটিজনেরা মুগ্ধ হয়ে যায় তাঁর আশ্চর্য সুন্দর গান শুনে। নদীয়ার রানাঘাটের রানু লতা কন্ঠী রূপে পায় পরিচিতি। এরপর তিনি একটি দুর্গা পুজো কমিটির থিম সং গাওয়ার সুযোগ পান, তারপরেই বলিউডে প্লেব্যাক করেন ভবঘুরে রাণু মন্ডল।

ranu-mandal-record-a-song-for-himesh-reshammiya-s-next-film

‘হ্যাপি হার্ডি অ্যান্ড হীর’ ছবির হিমেশ রেশমিয়ার সুরে একটি গান ‘তেরি মেরি’ গান রেকর্ড করেন রাণু মন্ডল। বৃহস্পতিবার রাতে রানুর গাওয়া সেই গান নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে হিমেশ রেশমিয়া শেয়ার করেন। ‘হ্যাপি হার্ডি অ্যান্ড হীর’ ছবিটি মুক্তি পাবে কয়েক মাসের মধ্যেই। ছবির গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে রয়েছেন সালমান খান এবং প্রযোজক হিমেশ নিজেও। ছবির সংগীত পরিচালক হিমেশ নিজেই।

জানা গিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় রাণু মন্ডলের গান ভাইরাল হবার পর তাঁর গান শুনে মুগ্ধ হয়েছিলেন হিমেশ। তারপর একটি জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো সুপারস্টার সিঙ্গারের মঞ্চে রাণুকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তাঁকে নিজের একটা সিনেমায় গান রেকর্ড করাবেন বলে। সেই প্রতিশ্রুতি রেখে গাওয়ালেনও গান।

এখন প্রশ্ন যে, হিমেশ রেশমিয়া তাঁকে প্রথম গান গাওয়ার জন্য কত টাকা দিয়েছেন? একটি সর্বভারতীয় সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, হিমেশ রেশমিয়া রাণুর গাওয়া প্রথম গানের জন্য তাঁকে ৬ থেকে ৭ লক্ষ টাকা দিয়েছিলেন। আবার কোনো সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা যাচ্ছে তিনি পেয়েছেন ৩ থেকে ৪ লক্ষ টাকা। কিন্তু টাকার অঙ্ক যাইহোক, রাণু মন্ডল প্রথমে সেই টাকা নিতে রাজি হননি। হিমেশ রেশমিয়া এক প্রকার জোড় করেই এই টাকা রাণু মন্ডলের হাতে ধরিয়ে দেন। রাণু মন্ডলকে তিনি এও বলেন “বলিউডের সুপারস্টার হয়ে ওঠা থেকে আপনাকে কেউ আটকাতে পারবেনা।”

সূত্রের মারফৎ এও জানা গিয়েছে, অক্ষয় কুমারের পরবর্তী একটি ছবির জন্য রাণু মন্ডল বলিউডে আরও একটি গান গাওয়ার সুযোগ পেতে চলেছেন।