‘শুনো গওর সে দুনিয়াবালো’, ব্রোঞ্জ জিতে নাচ ভারতীয় মহিলা হকি দলের

নিজস্ব প্রতিবেদন : কমনওয়েলথ গেমসে ইতিমধ্যেই ভারতের ঝুলিতে একগুচ্ছ পদক এসেছে। বিভিন্ন ইভেন্টে অংশগ্রহণকারী প্রতিযোগিতা জয়লাভ করে এই সকল পদক ছিনিয়ে এনে দিয়েছেন। এই সকল পদকের মধ্যে রয়েছে মহিলা হকি দলের পদক। তারা এবারের কমনওয়েলথ গেমসে ব্রোঞ্জ জিতেছেন।

চলতি বছর কমনওয়েলথ গেমসের সেমিফাইনালে বিতর্কিত পরাজয়ের পর ব্রোঞ্জ জয়ের লক্ষ্যে নেমে জয় হাসিল করে ভারতীয় মহিলা হকি দল। ব্রোঞ্জ জয়ের লক্ষ্যে নেমে ভারতীয় মহিলা হকি দল গতবারের চ্যাম্পিয়ন নিউজিল্যান্ডকে ২-১ গোলে পরাজিত করে। এদিনের এই ম্যাচের শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলে ভারতীয় দল এগিয়ে থাকলেও ৩০ সেকেন্ডের কম সময় আগে কর্নার পেয়ে সমতা ফেরান নিউজিল্যান্ডের অলিভিয়া মেরি।

প্রথম থেকে এগিয়ে থাকার পর শেষ মুহূর্তে ম্যাচের সমতা ফিরে যাওয়াই এই ম্যাচ গড়ায় শুট আউটে। সেখানে ভারতীয় মহিলা হকি দল ২-১ গোলে নিউজিল্যান্ডকে পরাজিত করে। এই ভাবে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ পদক ছিনিয়ে নেওয়ার পর ভারতীয় মহিলা হকি দলের সদস্যরা নিজেদের আনন্দ ধরে রাখতে না পেরে নেচে ওঠেন।

গর্বের সেই মুহূর্তের মহিলা হকি দলের সদস্যদের নাচের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতে সময় নেয়নি। খুব অল্প সময়ের মধ্যে সেই ভিডিও ভাইরাল হয় এবং যাতে দেখা যায় মহিলা হকি দলের সদস্যরা শঙ্কর মহাদেবনের ‘শুনো গওর সে দুনিয়াবালো’ গানের সঙ্গে নেচে চলেছেন। এমনিতে এই ম্যাচ জেতার পর ভারতের এই মহিলা হকি দল দারুণভাবে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিল।

এই প্রতিযোগিতায় সেমিফাইনালে ভারতীয় মহিলা দল কড়া টক্কর দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়াকে। ম্যাচ শেষ হওয়া পর্যন্ত সমান সমান থাকলেও পেনাল্টি শ্যুটআউটে ভারতীয় মহিলা হকি দলের অধিনায়ক সবিতা পুনিয়া অস্ট্রেলিয়ার প্রথম গোলটা আটকে দিয়েছিলেন। কিন্তু, স্কোর বোর্ডে ৮ সেকেন্ড উলটো গুনতি শুরু হয় নি। সেকারণে অস্ট্রেলিয়া আরও একবার পেনাল্টি শ্যুট করার সুযোগ পেয়ে গিয়েছিল। এই জয়ের পর ৪৩টি পদক এলো ভারতের ঝুলিতে। ১৫টি সোনা, ১১টি রুপো ও ১৭টি ব্রোঞ্জ জিতল ভারত।