বিশ্বের সবথেকে ছোট এই গরুই এখন নেটদুনিয়ার সেনসেশন, রইলো বিশেষত্ব

নিজস্ব প্রতিবেদন : গরু সম্পর্কে নতুন কিছু বলার না থাকলেও বর্তমানে নেট দুনিয়ার সেনসেশন হয়ে উঠেছে বিশ্বের সবথেকে ছোট এই গরুটি। আসলে গরু গৃহপালিত পশু হলেও বর্তমানে যে গরুটি নেটদুনিয়ায় সেনসেশন হয়ে উঠেছে তাকে বাড়িতে পোষা হচ্ছে একেবারে পোষ্য পশুদের ধাঁচে। যা রীতিমতো মন জয় করেছে নেটিজেনদের।

এই ছোট গরু বাড়ির মধ্যে পোষা এবং ঘরের আনাচে-কানাচে খেলে বেড়ানোর একটি ভিডিও সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হওয়ার পরেই বেশ নজর কেড়েছে। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, ছোট্ট ওই গরুটিকে গলায় ঘন্টা এবং অন্যান্য সাজে সজ্জিত করা হয়েছে। আসলে গরুকে গোমাতা হিসেবে এমন সাজিয়ে তোলার রয়েছে ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে। তবে এই ভিডিওটিতে যে গরুটি দেখা যাচ্ছে সেই গরুর রয়েছে বিশেষ বিশেষত্ব।

যিনি অর্থাৎ এস রাজিব কৃষ্ণ এই ভিডিওটি আপলোড করার সময় জানিয়েছেন এই গরুটি হলো Punganur প্রজাতির গরুর শিশু। Punganur প্রজাতি হলো বিশ্বের সবথেকে ছোট প্রজাতির গরুর। এই প্রজাতির গরুর মূলত দেখা যায় অন্ধ্রপ্রদেশ এবং দক্ষিণ ভারতের বেশ কিছু অঞ্চলে। ব্রিড পদ্ধতিতে এই প্রজাতির গুরুদের জন্ম হলেও তা বিলুপ্ত প্রায়।

আরও পড়ুন :

Punganur প্রজাতির গরু উচ্চতায় সর্বাধিক তিন থেকে চার ফুট হয়ে থাকে। তবে এদের ওজন ১৫০ থেকে ২০০ কেজি পর্যন্ত হয়। দিনে ৪ থেকে ৫ লিটার দুধও দেয় এই গরু। এইসকল গরুর দুধে প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট থাকে। যারা সাধারণ গরুর দুধের তুলনায় পাঁচ থেকে সাড়ে পাঁচ শতাংশ বেশি। কারণ সাধারণ দুধে ফ্যাট থাকে তিন থেকে সাড়ে তিন শতাংশ। সেখানে এদের দুধে ফ্যাটের পরিমাণ ৮ থেকে ৯ শতাংশ।