হাত তুলে কাশ্মীরে আত্মসমর্পণ জঙ্গির, নাটকীয় ভিডিও প্রকাশ করলো ভারতীয় সেনা

নিজস্ব প্রতিবেদন : এর আগে এই ভাবে কোন জঙ্গিকে আত্মসমর্পণ করতে দেখা দিয়েছে কিনা তা কারোর মনে নেই। হাত তুলে একেবারেই অসহায় অবস্থায় আত্মসমর্পণের জন্য খালি গায়ে পাজামা পরে এগিয়ে আসছেন এক সশস্ত্র জঙ্গী। ভারতীয় সেনাদের তরফ থেকে তাকে বলা হচ্ছে, ‘আ বেটা। গলতি হো গেয়ি। কই গোলি নেহি চালায়ে গা।’ আর এই কথা শুনেই ওই জঙ্গী ভারতীয় সেনাবাহিনীর কাছে এগিয়ে আসেন এবং আত্মসমর্পণ করেন। তৃষ্ণার্ত ওই জঙ্গী প্রথমেই জল চায় খাওয়ার জন্য। সেনাবাহিনীর তরফ থেকে তাকে জল দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।

জঙ্গি শিবিরের নাম লেখানো ওই কাশ্মীরি যুবকের আত্মসমর্পণের নাটকীয় ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে ভারতীয় সেনার তরফ থেকে। আর সেই ভিডিও সামনে আসতেই ভারতীয় সেনাবাহিনীর মানবিকতার দিকটি পরিস্ফুটিত। ভারতীয় সেনাবাহিনী যেমন বদলা নিতে পারে, ঠিক তেমনি বদলও আনতে পারে। সেনাবাহিনীর তরফ থেকে জানা গিয়েছে আত্মসমর্পণ করা জঙ্গী শিবিরের নাম লেখানো ওই যুবকের বয়স বড়জোর ২০ হবে। তার কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি একে-৪৭।

গত শুক্রবার কাশ্মীরে ভারতীয় সেনা বাহিনীর তরফ থেকে জঙ্গী খোঁজে যৌথভাবে অভিযান চালানো হয়। আর এই অভিযান চলাকালীন ওই যুবক ভারতীয় সেনাবাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণ করে।

সেনাবাহিনীর সূত্রে জানা গিয়েছে ওই যুবকের নাম জাহাঙ্গীর। গত ১৩ অক্টোবর থেকে ওই যুবক পলাতক ছিলেন। পরিবারের তরফ থেকে তার খোঁজ চালানো হচ্ছিল। কিন্তু কেবা জানতো ওই যুবক নাম লিখিয়েছেন জঙ্গী শিবিরে। এরপর শুক্রবার সেনাবাহিনীর তরফ থেকে যৌথ অভিযান চলাকালীন ওই যুবককে দেখতে পাওয়া যায়। এরপর নিয়ম মেনে ওই যুবককে আত্মসমর্পণ করতে করা হয় এবং ওই যুবক আত্মসমর্পণ করেন। ওই যুবকের বাবা সেনাবাহিনীর কাছে আবেদন রেখেছেন তার ছেলেকে রক্ষা করার জন্য।