FIR হতেই গর্জে উঠলেন কঙ্গনা, ফের ক্ষোভ উগরে দিলেন মমতার বিরুদ্ধে

নিজস্ব প্রতিবেদন : একের পর এক বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতকে সাসপেন্ড করেছে টুইটার। তবে এই সাসপেন্ড হওয়ার পরও তিনি চুপ করে বসে থাকছেন না। এবার তিনি ইনস্টাগ্রাম থেকে একের পর এক ক্ষোভ উগড়ে দিচ্ছেন। শুক্রবার নিজের ইনস্টা স্টোরিতে মমতা বন্দোপাধ্যায়কে নিয়ে ফের একবার বিস্ফোরক মন্তব্য করতে দেখা গেল তাকে। মূলত কঙ্গনার বিরুদ্ধে এফআইআর হওয়ার পরেই এই বিস্ফোরক মন্তব্য।

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন শেষ হওয়ার পর রাজনৈতিক অশান্তি নিয়ে অভিনেত্রী কঙ্গনাকে তোপ দাগতে দেখা যায়। কঙ্গনার ক্ষোভ উগরে দেওয়ার সময় তার আক্রমণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে ওঠেন সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এরপরেই কঙ্গনার টুইটার সাসপেন্ড করে কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে কঙ্গনার একাধিক বিতর্কিত মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে গত বৃহস্পতিবার বিধাননগর থানায় আইনী পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য অভিযোগ দায়ের করেন তৃণমূলের মুখপাত্র ঋজু দত্ত। আর এরপরেই আরও ক্ষেপে উঠেন কঙ্গনা।

বৃহস্পতিবার থেকেই একের পর এক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করে পোস্ট করতে থাকেন কঙ্গনা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি বিকৃত করে পোস্ট করা, ভোট-পরবর্তী একাধিক রাজনৈতিক অশান্তির ছবি পোস্ট করা, এবং গতকাল গান্ধী মূর্তির পাদদেশে প্রতিবাদ জানানোর জন্য রূপা গাঙ্গুলী এবং অগ্নিমিত্রা পলকে আটক করার বিরুদ্ধেও গর্জে ওঠেন কঙ্গনা।

এরপর শুক্রবার রাত থেকে তার ইনস্টা স্টোরিতে ঘুরে বেড়াচ্ছে ওই এফআইআর-এর ছবি। শুধু ছবি নয় এর পাশাপাশি কঙ্গনার লেখা ‘রক্তখেকো রাক্ষসী মমতা, তিনি তাঁর শক্তি দিয়ে আমায় চুপ করাতে চাইছেন’-এও ঘুরে বেড়াচ্ছে।

আরও পড়ুন :

তৃণমূল নেতাদের দাবি, ভোট-পরবর্তী অশান্তি রুখে দেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেখানেই যাচ্ছেন আর্জি জানাচ্ছেন। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে অভিনেত্রী কঙ্গনা এমন মন্তব্য পশ্চিমবঙ্গের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে পারে।