কাটমানি নিয়ে সুর চড়ালেন নচিকেতা, গাইলেন গান

নিজস্ব প্রতিবেদন : দিন কয়েক আগে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি নজরুল মঞ্চে দলীয় কাউন্সিলরদের বৈঠকে কাউন্সিলর এবং কর্মীদের কাটমানি নেওয়া নিয়ে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন। তিনি সুর চড়িয়ে জানিয়ে ছিলেন, ‘কেউ যদি টাকা নিয়ে থাকে তবে তা ফেরত দিয়ে দিন, নাহলে কিন্তু কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

আর এরপর থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় কাটমানি ফেরতের দাবিতে ঘেরাও ও অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হতে থাকেন দলীয় কর্মীরা। মুখ্যমন্ত্রীর এহেন মন্তব্যে ব্যাপক চাপের মুখে পড়েন দলের কর্মীরা। জায়গায় জায়গায় কাটমানি ফেরতের দাবিতে বচসার জেরে দলীয় কর্মীদের বক্তব্যে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা ব্যানার্জির আরো চাপ বাড়ে।

এবার সেই অস্বস্তি আরও একটু বাড়িয়ে ফেললেন শাসক দল ঘনিষ্ঠ সঙ্গীত শিল্পী নচিকেতা। ‘কাটমানি’ নিয়ে গান বাঁধলেন তিনি, সুরে সুরে কাটমানি নেওয়া জনপ্রতিনিধিদের হুঁশিয়ারি দিলেন।

গিটার হাতে নচিকেতা গাইলেন, “খেয়েছেন যারা কাটমানি, দাদারা অথবা দিদিমণি – এসেছে সময় গতিময়, দাঁত ক্যালাতে ক্যালাত ফেরৎ দিন৷ মন্ত্রী অথবা আমলা – জনরোষ এবার সামলা৷………”

মুখ্যমন্ত্রী কাটমানি নিয়ে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন, “নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করা হবে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে কঠোর শাস্তি পেতে হবে।” সেই সুরেই গেয়েছেন গান ‘বৃদ্ধাশ্রম’ স্রষ্টা নচিকেতা।

কাটমানি নিয়ে বিভিন্ন সরকারি প্রকল্প পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে দীর্ঘদিনের। সংগীত শিল্পী নচিকেতার গানের উঠে এসেছে সেই প্রসঙ্গ।

ইতিমধ্যেই নচিকেতার সেই গান সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। এমনকি এই গানটি কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেছেন এবং লিখেছেন, “মানুষের মনের কথা গানের মাধ্যমে সঠিক মাত্রার ‘Sattire’-এর তড়কা লাগিয়ে সকলের সামনে নিয়ে আসার জন্য নচিকেতা-দাকে আমার অশেষ ধন্যবাদ 😀🤘😂”।

বাম জমানায় এই সংগীত শিল্পী নচিকেতার সরকারি দপ্তরের কর্মসংস্কৃতি, স্বাস্থ্য ব্যবস্থার পরিকাঠামো নিয়ে বারবার সুর চড়া করে গান লিখেছেন ও গেয়েছেন। সেসব নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল। কিন্তু মমতা ঘনিষ্ঠ এই গায়ক মমতা সরকারের আমলে সরকারের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ থাকলেও একবারও মুখ খোলেননি। তারপর হঠাৎ এই ভাবে আজ ‘কাটমানি’ নিয়ে গান গাওয়ার প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে সর্বত্র।