১ টাকায় বিরিয়ানি থেকে মাছ ভাত! অবাক করা হলেও মিলছে এই বাংলায়

নিজস্ব প্রতিবেদন : খাওয়া-দাওয়ার দিক দিয়ে বাঙালিরা অন্যান্যদের থেকে কিছুটা হলেও এগিয়ে। বাঙালিদের পাতে যেমন মাছ না পড়লে তৃপ্তি আসে না ঠিক সেইরকমই আবার তারা বিরিয়ানি খেতেও সমানভাবে ভালোবাসেন। তবে রোজ রোজ তো আর সবার পক্ষে কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা খরচ করে এই সকল খাবার খাওয়ার সামর্থ্য হয় না।

যেখানে মাছ ভাত ৬০ থেকে ৭০ টাকা প্লেট, বিরিয়ানি কম করে ১০০ টাকা প্লেট, সেই জায়গায় এই পশ্চিমবঙ্গেই এমন এক ক্যান্টিন খোলা হয়েছে যাতে মাত্র ১ টাকাতেই মিলে এই সব। মাত্র ১ টাকায় বিরিয়ানি, মাছ-ভাত ছাড়াও পাওয়া যায় নিরামিষ বিভিন্ন ধরনের খাবার। অভিনব এই ক্যান্টিনের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে উত্তর ২৪ পরগনার বারাসাতে।

মূলত দুঃস্থ দরিদ্র এবং হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে আসা রোগী ও রোগীর পরিজনদের জন্য এমন অভিনব পরিষেবা দিয়ে আসছে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। সাত মাসের বেশি সময় ধরে এই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা বারাসাত হাসপাতালের ধারে ৩৫ নম্বর জাতীয় সড়কে এই পরিষেবা দিচ্ছে। প্রথমদিকে এই ক্যান্টিন সপ্তাহে ৭ দিন খোলা রাখা হলেও বর্তমানে রবিবার বন্ধ রাখা হয়।

বারাসাত হাসপাতালের ভিতরেই ওই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এই ক্যান্টিন চালানোর ইচ্ছা প্রকাশ করলেও হাসপাতালের ভিতর পারমিশন না মিলার পরিপ্রেক্ষিতে তারা রাস্তাতেই এমন পরিষেবা দিয়ে আসছেন। প্রতিদিন দুপুর ১২ থেকে ১ টা পর্যন্ত এই ক্যান্টিনে খাবার খাওয়ার জন্য উপচে পড়া ভিড় দেখা যায়। বর্তমানে প্রতিদিন ২০০ থেকে ২৫০ জনকে খাবার সরবরাহ করা হয় বলে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে এবং তাদের ইচ্ছে আগামী দিনে এই সংখ্যা ১০০০ করার।

হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে আসা অথবা আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষেরা যাতে অভুক্ত না থাকেন তার জন্য এমন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলেছে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে। অন্যদিকে এই খাবারের দাম মাত্র এক টাকা হলেও এর গুণগত মান যথেষ্ট ভালো বলে দাবি করেছেন ক্যান্টিনে আসা উপভোক্তারা।