Gandhiji on Indian Currency: কবে থেকে ভারতীয় নোটে গান্ধীজীর ছবি ব্যবহার শুরু হয়? কেন নোটে অন্য কাউকে রাখা হলো না!

Prosun Kanti Das

Published on:

Reasons for using the image of Gandhiji on Indian currency notes: পূর্বে ভারতীয় নোটে অশোক স্তম্ভের চিহ্ন থাকলেও বর্তমানে ভারতীয় নোটের পরিচয় পাওয়া যায় হাস্যজ্জ্বল মহাত্মা গান্ধীজীর ছবির মাধ্যমে। তবে ভারতীয় নোটে মহাত্মা গান্ধীর এই ছবি নিয়ে অনেকেই নানা ধরনের প্রশ্ন তুলেছেন। কারোর প্রশ্ন কেন গান্ধীজীর ছবি ভারতীয় নোটে রাখা হলো? কবে থেকেই বা সরকার ভারতীয় নোটে গান্ধীজীর ছবি মুদ্রিত (Gandhiji on Indian Rupee) করল? আজকের প্রবন্ধে সেইসব প্রশ্নেরই উত্তর জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ভারত স্বাধীন হওয়ার পূর্বে ব্রিটেনের রাজার ছবি মুদ্রিত ছিল ভারতীয় নোটে। এমনকি ১৯৪৭ সালে ভারত স্বাধীন হওয়ার পরেও দুই বছর ব্রিটেনের ষষ্ঠ রাজা জর্জের ছবি মুদ্রিত হল ভারতীয় নোটে। ঠিক দুই বছর পর অর্থাৎ ১৯৪৯ সালে ভারতীয় নোটে মুদ্রিত হয় অশোক স্তম্ভের ছবি। মূলত অশোক স্তম্ভের পরেই সময়ের সাথে সাথে ভারতীয় নোটে রূপের পরিবর্তন হয়। ভারতীয় নোটে মুদ্রিত হয় অন্য ছবি (Gandhiji on Indian Currency)। কিভাবে এলো সেই ছবি?

শোনা যায়, সালটা ছিল ১৯৬৯ আর সেই বছরই ১০০ তম জন্মবার্ষিকী ছিল মহাত্মা গান্ধীর। জন্মবার্ষিকী উপলক্ষেই প্রথমবার ছবিতে দেখা গিয়েছিল গান্ধীজীকে। যে ছবি পরিলক্ষিত হয়েছিল সেবাগ্রাম আশ্রমের পটভূমিতে। তারপর ১৯৮৭ সালে ৫০০ টাকার নোটের একটি সিরিজ জারি করা হয়। আর সেই ৫০০-এর নোটে দেখা যায় দ্বিতীয়বারের মতো মহাত্মা গান্ধীর ছবি।

আরও পড়ুন 👉 Mahatma Gandhi: উত্তরসূরির অভাব, নাকি অন্য কিছু! কেন পাঁচ পাঁচবার মনোনীত হলেও নোবেল পাননি গান্ধীজি

ঠিক তারপরেই অর্থাৎ ১৯৯৫ সালে ভারতীয় নোটে মহাত্মা গান্ধীর ছবি (Gandhiji on Indian Rupee) মুদ্রিত করার সিদ্ধান্ত নেয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া। এর জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া কেন্দ্র সরকারের কাছে একটি প্রস্তাব পাঠায়। যে প্রস্তাবে জানানো হয় ভারতীয় নোটে স্থায়ীভাবে গান্ধীর ছবি মুদ্রণ করার।

তবে তৎক্ষণাৎ কেন্দ্র সরকারের থেকে কোনো অনুমোদন পায়নি কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক। ঠিক তার এক বছর পর অর্থাৎ ১৯৯৬ সালে কেন্দ্র সরকার তরফে অনুমোদন দেওয়া হয় ভারতীয় নোটে মহাত্মা গান্ধীর ছবি সফল ভাবে মুদ্রিত (Gandhiji on Indian Currency) করার। সরকার অনুমোদনের পর থেকেই অশোক স্তম্ভের পরিবর্তে ভারতীয় নোটে মহাত্মা গান্ধীর হাস্যোজ্জ্বল ছবি মুদ্রিত করা হয়। যা এখনো পর্যন্ত মুদ্রিত হয়ে আসছে। পাশাপাশি সময়ের সাথে সাথে নোটের রুপ ও রঙও পরিবর্তিত হয়েছে।