CGHS Card Rules: নিয়মে বদল আনল কেন্দ্র, সিজিএইচএস কার্ড নিয়ে এবার জারি নয়া নির্দেশিকা

Antara Nag

Published on:

There is a big change in CGHS Card Rules by Central Government: কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে সিজিএইচএস কার্ড প্রদান করা হয়। এই কার্ডটি দেওয়া হয় স্বাস্থ্য পরিষেবা দেওয়ার জন্য। কিন্তু সরকারের তরফ থেকে যে সমস্ত স্বাস্থ্য পরিষেবা দেওয়া হয় সেগুলি পাবার জন্য এই কার্ডটি প্রয়োজন। এটি মূলত একটি প্লাস্টিক কার্ড যেখানে ছবি ও আইডি প্রুফ দেওয়া থাকে। আপনি চাইলেই নিজের কার্ড অন্য কাউকে দিয়ে দিতে পারবেন না। আপনার নামে ইস্যু হওয়া কার্ডটি আপনার স্বাস্থ্য পরিষেবার জন্যই ব্যবহার করা যাবে। মূলত সমস্ত কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী এবং তার পরিবারের সদস্যরা এই কার্ডের সুবিধা ভোগ করতে পারেন। সম্প্রতি সপ্তম পে কমিশনের মাধ্যমে কার্ডের নিয়মে (CGHS Card Rules) বেশ বড় রকমের পরিবর্তন করল কেন্দ্রীয় সরকার।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের দ্বারা সম্প্রতি ১ টি নতুন মেমো জারি করা হয়েছে। সেই মেমোতে রয়েছে সিজিএইচএস কার্ড সংক্রান্ত একাধিক নির্দেশিকা (CGHS Card Rulles)। কার্ডের আবেদন এবং সরকারের পক্ষ থেকে তা প্রদান করার নিয়মে এসেছে পরিবর্তন। প্রযুক্তিগত দিকগুলি মাথায় রেখে এই পরিবর্তন করা হয়েছে। এখন থেকে যেকোনো কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীকে সিজিএইচএস কার্ডের সুবিধা পাবার জন্য আবেদন করতে হবে অনলাইনে। সকলকে ১ টি অস্থায়ী রেফারেন্স নাম্বার দেওয়া হবে অনলাইনে আবেদন করার বিষয়টি এখন থেকে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে।

শুধুমাত্র অনলাইনে আবেদন করলেই হবে না। সিজিএইচএস কার্ড (CGHS Card Rules) পাবার জন্য আবেদন পত্রটি জমা করতে হবে সরকারের পক্ষ থেকে দায়িত্বপ্রাপ্ত দপ্তরেও। অনলাইনে আবেদন করার পর সিজিএইচএস কার্ডের আবেদন পত্রটি প্রিন্ট আউট করে রাখতে ভুলবেন না। আবেদনকারীর স্বাক্ষর এবং ছবি সহ ওই প্রিন্ট আউট জমা দিতে হবে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে দায়িত্বপ্রাপ্ত দপ্তরে। আবেদন পত্রের সাথে জমা দিতে হবে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্রও। এরপর সেখান থেকে এই আবেদনপত্র পাঠানো হবে সিজিএইচএস-এর দপ্তরে। আবেদন পত্র জমা করার পর সেই আবেদন পত্রের সত্যতা যাচাই করা হবে সরকারের পক্ষ থেকে। আবেদন পত্র এবং আবেদনকারী যে নথিপত্র জমা দেবেন সবকিছু ভালোভাবে যাচাই করার পর কার্ডটি পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন 👉 BSNL 84 Days Recharge: প্রতিদিন ৩ জিবি ডেটা, ৮৪ দিনের ভ্যালিডিটি, BSNL দিচ্ছে সবচেয়ে সস্তায় বড় সুবিধা

আবেদনপত্র ছাড়াও সিজিএইচএস কার্ডের নিয়মে (CGHS Card Rules) করা হয়েছে আরো বেশ কিছু পরিবর্তন। কিছুদিন আগেই সিজিএইচএস কার্ডের সুবিধাভোগীদেরকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের সাথে কার্ডটিকে যুক্ত করার জন্য। অর্থাৎ, সিজিএইচএস কার্ডের সাথে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের নম্বর যুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছিল স্বয়ং কেন্দ্রীয় সরকার। এই নির্দেশের পিছনে সরকারের ঠিক কি উদ্দেশ্য ছিল তা এখনো অজানা। তবে নির্দেশ আসার পর থেকেই এই নিয়ে নানা রকম প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। সম্প্রতি কার্ডের নিয়মের একাধিক পরিবর্তন করা হয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম হলো এই লিংকটির প্রসিডিওর বন্ধ রাখা। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প এবং সিজিএইচএস কার্ড লিঙ্কিং করার প্রক্রিয়াটি বন্ধ করে দিতে বলা হয়েছে। প্রত্যেক সরকারি কর্মচারীকে বলা হয়েছে তারা যেন কেউ আর এই মুহূর্তে ২ টি কার্ডের লিঙ্ক না করায়।

স্বাস্থ্য দপ্তরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, সিজিএইচএস কার্ডের সাথে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প লিংক করতে গিয়ে একাধিক ভুল তথ্য জমা করা হয়েছে। এছাড়াও আধারের সুরক্ষা নিশ্চিত না করে আধারের বিবরণ সঞ্চয় করে রাখাটা সম্ভব নয়। এই মুহূর্তে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের প্রয়োজনীয়তা বেড়েই চলেছে। যে সমস্ত ক্ষেত্রগুলিতে সিজিএইচএস কার্ডের প্রয়োগ করা হয়, সেখানে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পেরও প্রয়োগ করা হয়। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছিল যদি ২ টো প্রকল্পের লিংক করা সম্ভব হয়, তাহলে আর প্রকল্পের আওতায় কত টাকা রয়েছে তা জানার জন্য সুবিধাভোগীকে বাইরে কোথাও যেতে হবে না। তিনি নিজের মোবাইল ফোনেই সমস্ত তথ্য জেনে নিতে পারবেন কিন্তু বিশেষ কিছু কারণবশত এই মুহূর্তে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প এবং সিজিএইচএস কার্ডের লিংকিং প্রসিডিউর বন্ধ রাখার নির্দেশ (CGHS Card Rules) দেওয়া হয়েছে।