পরের পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে তৃণমূল নেতার প্রকাশ্যে হুমকি, সরগরম বীরভূম

নিজস্ব প্রতিবেদন : বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিরোধীশূন্য পঞ্চায়েত গড়ে তোলার জন্য তৃণমূল যে কৌশল নিয়ে ছিল তা নিয়ে সমালোচনার শেষ নেই। বিরোধীরা বারংবার তাদের উন্নয়ন বাহিনী নিয়ে সরব হয়েছেন। আর এবার পরের পঞ্চায়েত ভোট আসতে দেরি হলেও এখন থেকেই তা নিয়ে প্রকাশ্য জনসভায় হুমকি দিতে দেখা গেল এক তৃণমূল নেতাকে।

সোমবার বীরভূমের লাভপুরের দাঁড়কা গ্রাম পঞ্চায়েতে সদ্য নির্বাচিত বিধায়ক অভিজিৎ সিংহকে সংবর্ধনা এবং অন্যান্য রাজনৈতিক দল থেকে আগত কর্মীদের নিয়ে একটি যোগদান সভার আয়োজন করা হয়। এই যোগদান সভায় বক্তব্য রাখার সময় বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সহ-সভাপতি আব্দুল মান্নানের গলা থেকে এমন হুমকি শোনা গেল।

অন্যান্য রাজনৈতিক দল থেকে আগত কর্মীদের তৃণমূলের স্বাগত জানিয়ে এদিন নিজের বক্তব্য রাখার সময় আব্দুল মান্নান বলেন, “আজ থেকে আপনারা যারা বিজেপি কর্মী ছিলেন তাদের আর বিজেপি সত্তা থাকলো না। হাততালি দিয়ে সবাই বলুন আমরা সবাই তৃণমূল। অন্য গ্রুপ যাতে আপনাদের ডিসটার্ব না করে সেদিকে নজর রাখব।”

এর পরেই তার গলার স্বর বদলে যায়। তিনি বলেন, “আমি আর একটা কথা খুব পরিষ্কার বলছি, আমরা প্রত্যেক বুথে বুথে একজন করে প্রার্থী ঠিক করব। আর দেড় বছরের মধ্যে পঞ্চায়েত ভোট। দুটো ক্যান্ডিডেট কিছু থাকবে না, আমার তোমার কিছু থাকবে না। সব তৃণমূলের থাকবে। আর তৃণমূলের প্রার্থী যদি দুটো হয়, আর সে যদি নমিনেশন প্রেপার ফাইল করতে যায় লাভপুর থেকে সে আর ফিরে আসবে না। পরিষ্কার ভাষায় আমি আপনাদের বলছি।”

তৃণমূল নেতা আব্দুল মান্নানের এই মন্তব্যের পর এই সরগরম হয়ে উঠেছে বীরভূম। তার বক্তব্যে ফুটে উঠেছে ‘সব তৃণমূলের থাকবে’। আর এই বক্তব্য প্রকাশ্যে আসতেই আগামী নির্বাচনে তৃণমূলের রণনীতি নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন বিরোধীরা।