রিজার্ভ ডে’তেও বৃষ্টি হলে কি হবে! না হলেই বা কি হবে?

নিজস্ব প্রতিবেদন : ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে ভারত নিউজিল্যান্ড ম্যাচ মানেই বৃষ্টি। এই দুই দেশের খেলায় গ্রুপের ম্যাচে একটি বল গড়ায়নি বৃষ্টির কারণে। তারপর আবার সেমিফাইনালেও বৃষ্টির বাধায় ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচ। ম্যানচেস্টারের ওয়ার্ল্ড ট্রাফোর্ড স্টেডিয়ামে গতকালকের খেলায় নিউজিল্যান্ড প্রথমে টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। তবে ভারতের শক্তপোক্ত বোলিংয়ের সামনে প্রথমে ব্যাট করে একেবারেই ভাল জায়গায় পৌঁছাতে পারেনি নিউজিল্যান্ড। তার মাঝেই বৃষ্টিতে থমকে যায় ম্যাচ। শেষ বল হওয়া পর্যন্ত নিউজিল্যান্ড ৪৬.১ ওভারে পাঁচ উইকেটের বিনিময়ে ২১১ রান সংগ্রহ করে।

Source

তবে নিউজিল্যান্ডের আশা জুগিয়ে রেখে রস টেলর ৬৭ রানে অপরাজিত থেকে। অন্যদিকে ভারতের জাসপ্রিত বুমরাহ, রবীন্দ্র জাদেজা, ভুবনেশ্বর কুমার এবং প্রত্যেকেই দুর্দান্ত বোলিং করেছেন গতকাল।

কিন্তু এই বৃষ্টিতে ম্যাচ থেমে যাওয়ায় ভারতীয় ফ্যানদের মধ্যে চরম দুশ্চিন্তা! আজকে ভারতীয় খেলোয়াড়দের যে পারফরম্যান্স দেখা গিয়েছে খেলার মাঠে, তাতে প্রায় তারা জয় নিশ্চিত করে ফাইনালে যেতেই বসেছিল। কিন্তু বাঁধ সাদে বৃষ্টি। যদিও পয়েন্টের দিক থেকে ভারত গ্রুপ লিগে প্রথম তালিকায়, তাই খেলা না হলে ফাইনালে যাওয়ার রাস্তা নিশ্চিত।

Source

বুধবার ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে খেলা শুরু হবে ৪৬.১ ওভারের পর থেকেই। নিউজিল্যান্ড আর খেলবে বাকি ৩.৫ ওভার। তারপর ব্যাট হাতে নামবে ভারত। তবে আজকেও যদি বৃষ্টি বিঘ্নিত হয় ম্যাচ তবে চেষ্টা করা হবে ভারতের অন্তত ২০ ওভার খেলানোর। কারণ, ডার্কওয়াথ-লুইস নিয়মে দুটো দল অন্তত ২০ ওভার না খেললে জয়ী দল নির্ধারণ করা সম্ভব নয়। আর গতকালও সেই চেষ্টাই করা হয়েছিল। কিন্তু তা সম্ভব না হওয়ায় ম্যাচ গড়ায় রিজার্ভ ডে’তে।

Source

তবে আজও যদি বৃষ্টির কারণে খেলার ওভার কমে যায়, তাহলে লড়াইটা ভারতের কাছেও কঠিন হয়ে দাঁড়াতে পারে। কারন D/L মেথড অনুযায়ী ভারতের কাছে টার্গেট দাঁড়াতে পারে কম ওভারে বড় রান।

তবে আজ খেলা না হওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হলে নিউজিল্যান্ডের কপালে বিপদ। কারণ গ্রুপের লীগে ভারত এক নাম্বারে থাকার সুবাদে অনায়াসে চলে যাবে ফাইনালে। তবে ক্রমশ স্লো হতে চলা ম্যানচেস্টারের পিচে নিউজিল্যান্ডের ২১১ রানও কার্যকরী হয়ে উঠতে পারে।