Higher Secondary Exam 2024: উচ্চমাধ্যমিকের সেরা ভুল! উত্তরপত্রের বদলে প্রশ্নপত্র জমা দিয়ে বাড়ি ফিরল এই ছাত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন : গত ১৬ ফেব্রুয়ারি থেকে এবছরের শুরু হয়েছে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা (Higher Secondary Exam 2024)। ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি পরীক্ষা হয়ে গিয়েছে। এখনো পর্যন্ত যতগুলি পরীক্ষা হয়েছে সেই সকল পরীক্ষায় কোন অপ্রীতিকর ঘটনা দেখা যায়নি। তবে অপ্রীতিকর ঘটনা দেখা না গেলেও ইতিমধ্যেই দুটি আজব ঘটনা ঘটে গেল এবারের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায়।

চলতি বছর উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় প্রথম যে আজব ঘটনাটি ঘটে সেটি ঘটেছিল কোচবিহারে। সেখানকার মাথাভাঙ্গা ২ নম্বর ব্লকের পারডুবি উচ্চবিদ্যালয়ের ছাত্র জয়ন্ত বর্মনের সিট পড়েছিল আটপুকুরি উচ্চ বিদ্যালয়ে। তবে ওই ছাত্র পরীক্ষা হলে ঢুকে দেখতে পায়, তার রুমে প্রত্যেকেই ছাত্রী। এই অবস্থা দেখে সে পরীক্ষা না দিয়েই বাড়ি ফিরে গিয়েছিল।

প্রথম এমন আজব ঘটনার পর মঙ্গলবার আরও একটি আজব ঘটনা ঘটতে দেখা গেল, আর এবারের এই আজব ঘটনাকে অনেকেই উচ্চমাধ্যমিকের সেরা ভুল বলে দাবি করছেন। এবার এক পরীক্ষার্থী উত্তরপত্র জমা দেওয়ার পরিবর্তে প্রশ্নপত্র জমা দিয়েই বাড়ি ফিরে আসে। যদিও শেষমেশ ওই পরীক্ষার্থীর বাড়ি থেকে সেই উত্তরপত্র উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় পরীক্ষার্থীর ভুল হলেও যিনি পরীক্ষক ছিলেন তার বিরুদ্ধে নানান প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। প্রশ্ন উঠছে কেন এই পরীক্ষক খাতা জমা নেওয়ার সময় তা খতিয়ে দেখেননি।

আরও পড়ুন 👉 Higher Secondary Exam 2024: রুমে শুধু মেয়ে আর মেয়ে, একা ছেলে হয়ে যা করল এই উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী

মঙ্গলবার এমন ঘটনাটি ঘটে শিলিগুড়িতে। জানা গিয়েছে, শিলিগুড়ির বয়েজ হাইস্কুলের ওই ছাত্র এমন ঘটনা ঘটায়। তার সিট পড়েছিল বরদাকান্ত বিদ্যাপীঠে। ওই ছাত্র অর্থনীতি বিভাগের একজন পরীক্ষার্থী। প্রশ্নপত্র জমা দিয়ে আসার পর বিষয়টি পরীক্ষকদের নজরে এলে ওই ছাত্রের বাড়ি থেকে উত্তরপত্র উদ্ধার করা হয়। তবে স্কুল কর্তৃপক্ষ ওই ছাত্রের নাম প্রকাশ করতে অনিচ্ছুক। তবে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হতে পারে বলেও জানা যাচ্ছে।

যদিও এই বিষয়টি ওই পরীক্ষার্থী ভুলবশত করে ফেলেছেন নাকি ইচ্ছাকৃতভাবেই এমনটা করেছেন তা এখনো স্পষ্ট নয়। তবে এমন ঘটনা ঘটা অর্থাৎ পরীক্ষা শেষ হওয়ার কিছুক্ষণ পর বিষয়টি নজরে এলে সঙ্গে সঙ্গে কাউন্সিলের সঙ্গে কথা বলা হয় এবং তারপরেই ওই পরীক্ষার্থীর বাড়ি থেকে উত্তরপত্র উদ্ধার করে আনা হয়। বিষয়টি সামনে আসতেই প্রথমে শিলিগুড়ি বয়েজ হাই স্কুলের সঙ্গে যোগাযোগ করে ওই পরীক্ষার্থীর বাড়ির ঠিকানা জেনে সেখান থেকেই উদ্ধার করা হয় উত্তরপত্র।