৩ কোটি রেশন কার্ড বাতিল করলো কেন্দ্র সরকার

লকডাউনের মাঝেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসওয়ান জানালেন, 'দেশে ৩ কোটি রেশন কার্ড বাতিল বা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।' কিন্তু কেন?

নিজস্ব প্রতিবেদন : করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ভারতে মার্চ মাসের ২৪ তারিখ থেকে জারি হয় লকডাউন। এখনও চলছে সেই লকডাউন। আর এই লকডাউন চলাকালীন কেন্দ্র সরকার ও রাজ্য সরকারের তরফ থেকে বিনামূল্যে দরিদ্রদের রেশন দেওয়ার কথা ঘোষণা করে। আর সেই মতো দুঃস্থ দরিদ্র মানুষেরা রেশন থেকে বিনামূল্যে খাদ্য সামগ্রী পাচ্ছেন। তবে এই লকডাউনের মাঝেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসওয়ান জানালেন, ‘দেশে ৩ কোটি রেশন কার্ড বাতিল বা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।’ কিন্তু কেন?

কারণ হিসাবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসওয়ান জানিয়েছেন, “রেশন কার্ড ডিজিটাল করার সময় এবং আধার লিঙ্ক করার সময় ৩ কোটি এমন রেশন কার্ড পাওয়া গিয়েছে যেগুলি জাল। আমি এই বিষয়ে সচিব, রাজ্য এবং বন্টন বিভাগদের নির্দেশ দিয়েছি বন্ধ হয়ে যাওয়া রেশন কার্ডের জায়গায় নতুন রেশন কার্ড উপভোক্তারা পেয়েছেন কিনা তা খতিয়ে দেখতে।”

আমাদের দেশে তথা রাজ্যে রেশন ব্যবস্থা নিয়ে সাধারণ মানুষের অভিযোগ দীর্ঘদিনের। অজস্র মানুষ দিনের পর দিন অভিযোগ করে আসছেন, যেসকল মানুষরা সত্যিই বিনামূল্যে অথবা কম দামে রেশন পাওয়ার অধিকারী তারা পাচ্ছেন না। বরং বেশ কিছু রাজনৈতিক দলের মদতে সমাজে প্রতিষ্ঠিত অনেকেই সরকারের এই সুবিধা লাভ করছে। আর এই সকল অভিযোগের রাশ টানতেই কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে রেশন কার্ডের সাথে আধার কার্ডের সংযোগ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আর সেই সংযোগ প্রক্রিয়া চলছে দীর্ঘদিন ধরে। এরপর গত শনিবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসওয়ানের এমন ঘোষণায় অনেকেই স্বস্তি পেয়েছেন আবার অনেকেই অস্বস্তিতে ভুগছেন।

এছাড়াও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসওয়ান আরো জানান, “২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী রেশন ব্যবস্থার সাথে ৮১.৩৪ কোটি মানুষের সংযুক্ত থাকা দরকার। কিন্তু এখনো পর্যন্ত যুক্ত হয়েছেন ৮০.৯৫ কোটি মানুষ। এই ৩৯ লক্ষ মানুষ যারা এখনও রেশন ব্যবস্থার সাথে যুক্ত হতে পারেননি তাদেরকে যুক্ত করার জন্য রাজ্য সরকারগুলিকে মাঝে মাঝেই চিঠি লেখা হয়। আর তারাও ওই সকল মানুষদের চিহ্নিত করে সংযুক্ত করার আগ্রহ দেখিয়েছেন।”

তবে এই রেশন কার্ড বাতিলেরর ক্ষেত্রে কোন কারণবশত আপনি ন্যায্য দাবিদার হওয়া সত্ত্বেও যদি আপনার রেশন কার্ড বাতিল হয়ে থাকে তাহলে আপনাকে সংশ্লিষ্ট খাদ্য দপ্তরের অফিসে যেতে হবে।সেখানে বিষয়টি জানাতে হবে এবং আপনার বাতিল হওয়া রেশন কার্ড ও আধার কার্ড দেখাতে হবে।সেগুলি সংযুক্তিকরণের মাধ্যমে আপনি নতুন করে আবার রেশন কার্ড পেতে পারেন।

এছাড়াও এদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসওয়ান জানিয়েছেন, “দেশের যেকোনো জায়গায় নিজের অধিকারের রেশন পাওয়ার জন্য আগামী ১লা জুন থেকে দেশের ২০টি রাজ্য নিয়ে চালু হচ্ছে ‘এক ন্যাশন, এক রেশন কার্ড’ ব্যবস্থা।ইতিমধ্যেই এই ব্যবস্থায় জানুয়ারি মাসে ১২টি রাজ্য ও এপ্রিল মাসে ৫টি রাজ্য যুক্ত হয়ে গেছে। বাকি তিনটি রাজ্য যুক্ত হতে চলেছে।”

সরকারের তরফে আরও জানানো হয়েছে, আধার ও রেশন কার্ড লিঙ্ক করা জরুরি৷ এই কারণেই বেশ কিছু কার্ড বাতিল করা হয়েছে৷ এছাড়া বেশ কিছু জাল কার্ড তৈরি করে সরকারের স্কিমে বিনামূল্যে জিনিস নেওয়া হচ্ছিল বলে অভিযোগ রয়েছে৷ তাই এই সমস্ত কার্ড বাতিল করে দেওয়া হয়েছে সরকারের তরফ থেকে৷