বোনাসের নিয়মে বদল! রাজ্য সিভিক ভলেন্টিয়ারদের মুখে ডবল হাসি ফোটালেন মমতা

Shyamali Das

Published on:

নিজস্ব প্রতিবেদন : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Bandopadhyay) রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসার পর নানান পরিবর্তন এনেছেন। রাজ্যে নানান পরিবর্তন আনার পাশাপাশি তিনি বেকার যুবক-যুবতীদের জন্য চাকরির নানান পদও চালু করেছেন। আর সেই সকল পদের মধ্যে একটি হলো সিভিক ভলেন্টিয়ার (Civic Volunteer)। এই সিভিক ভলেন্টিয়ারদের নিয়ে বছরের বিভিন্ন সময় নানান ধরনের বিতর্ক তৈরি হয় রাজ্যে, আর এবার দুর্গাপুজোর আগেও সেই একই বিতর্ক তৈরি হতে দেখা গেল।

দুর্গাপুজোর আগে সিভিক ভলেন্টিয়ারদের নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয় মূলত তাদের বোনাস নিয়ে। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী অভিযোগ করেন, দুর্গাপুজোর বোনাস দেওয়ার ক্ষেত্রে সিভিক ভলেন্টিয়ারদের ওপর দ্বিচারিতা করছে রাজ্য সরকার। কলকাতার সিভিক ভলেন্টিয়ারদের এক রকম বোনাস আর রাজ্যের অন্যান্য জায়গার সিভিক ভলেন্টিয়ারদের আরেকরকম বোনাস দেওয়া হচ্ছে। কলকাতার সিভিক ভলেন্টিয়ারদের বোনাস রাজ্যের অন্যান্য জায়গার সিভিক ভলেন্টিয়ারদের দ্বিগুণের বেশি।

সিভিক ভলেন্টিয়ারদের বোনাস নিয়ে যখন বিতর্ক তৈরি হয় ঠিক সেই সময়ই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিষয়টি নিয়ে নড়েচড়ে বসেন। আর মুখ্যমন্ত্রীর নড়েচড়ে বসার পরই রীতিমতো রাজ্যের সমস্ত জায়গার সিভিক ভলেন্টিয়ারদের বোনাসের নিয়মে বদল চলে এলো। কেননা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, পশ্চিমবঙ্গের সব সিভিক ভলেন্টিয়ারদেরই একই পরিমাণ বোনাস দেওয়া হবে।

শুভেন্দু অধিকারী যে অভিযোগ করেছিলেন সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি জানিয়েছিলেন, কলকাতার সিভিক ভলেন্টিয়ারদের দুর্গাপুজোর বোনাস হিসেবে ৫৩০০ টাকা দেওয়া হচ্ছে আর রাজ্যের অন্যান্য জায়গার সিভিক ভলেন্টিয়ারদের দুর্গাপুজোর বোনাস হিসাবে দেওয়া হচ্ছে ২০০০ টাকা। স্বাভাবিকভাবেই এত টাকার ফারাকের পরিপ্রেক্ষিতে বিতর্ক দানা বাঁধবে এটাই স্বাভাবিক। তবে এই ঘটনার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিশ্চিত করেছেন, রাজ্যের সব সিভিক ভলেন্টিয়াররা ৫৩০০ টাকা দুর্গাপুজোর বোনাস হিসাবে পাবেন।

রাজ্যের সিভিক ভলেন্টিয়ারদের পাশাপাশি রাজ্যের আশা কর্মীদেরও সুখবর শুনিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি আশা কর্মীদের সুখবর জানিয়ে তাদেরও দুর্গা পুজোর বোনাস হিসাবে ৫৩০০ টাকা দেওয়ার ঘোষণা করেছেন। প্রতিবছরই দুর্গাপুজোর আগে রাজ্যের অন্যান্য সরকারি কর্মচারীদের পাশাপাশি সিভিক ভলেন্টিয়ার এবং আশা কর্মীদের বোনাস দেওয়া হয়ে থাকে। এই বছর বিতর্ক শুরু হলেও অবশেষে সমপরিমাণ বোনাস পাচ্ছেন রাজ্যের সব সিভিক ভলেন্টিয়ার এবং আশা কর্মীরা।