মাত্র ২৮ ভোটে হাত ফসকালো কংগ্রেস! এই ৫ কেন্দ্রে লড়াই হল সেয়ানে সেয়ানে

নিজস্ব প্রতিবেদন : একুশের বিধানসভা নির্বাচনের দিকে যদি নজর রাখা যায় তাহলে দেখা যাবে, পশ্চিমবঙ্গের বেশ কয়েকটি বিধানসভায় বিধায়করা মাত্র কয়েক ভোটের মার্জিনে জয়লাভ করেছিলেন। সেয়ানে সেয়ানে লড়াইয়ের পর মাত্র কয়েক ভোটে হেরে বেশ কয়েকজন প্রার্থীকে আফসোস করতে হয়েছিল। চলতি বছর পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের ক্ষেত্রেও এমনই ঘটনার সামনে এলো। এমনকি মাত্র ২৮ ভোটে একটি কেন্দ্র ফসকাতে হয়েছে কংগ্রেসকে।

রবিবার ৫ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের মধ্যে চার রাজ্যের ফলাফল প্রকাশ হয়। এই চার রাজ্যের ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর দেখা যায় বিজেপি (BJP) এবারের নির্বাচনে অপ্রত্যাশিতভাবে ভালো ফল করে তিনটি রাজ্যের শাসক দলে পরিণত হয়েছে। কংগ্রেসের (Congress) থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে রাজস্থান এবং ছত্তিশগড়। অন্যদিকে নিজেদের আধিপত্য বজায় রেখেছে মধ্যপ্রদেশে। আর এই মধ্যপ্রদেশেই দেখা গেল ৫ কেন্দ্রে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই।

১) মধ্যপ্রদেশের বেহার বিধানসভা কেন্দ্র সামান্যর জন্য কংগ্রেসের হাত থেকে বেরিয়ে গিয়েছে। এই বিধানসভা কেন্দ্রে জয়ী হয়েছেন বিজেপির প্রার্থী ভগত সিং। তবে তার জয়ী হওয়ার ক্ষেত্রে ভোটের মার্জিন মাত্র ৫৫১। তিনি কংগ্রেস প্রার্থী সঞ্জয় উইকের থেকে এই সামান্য ভোট বেশি পেয়েছেন।

২) একইভাবে ধরমপুরি বিধানসভা কেন্দ্রেও বিজেপি খুব সামান্য মার্জিনে জয়লাভ করেছে। এই কেন্দ্রটিতে বিজেপির হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন কালু সিং ঠাকুর এবং কংগ্রেসের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন পাঁচিলাল মেদা। এক্ষেত্রে বিজয়ী বিজেপি প্রার্থীর সঙ্গে পরাজিত কংগ্রেস প্রার্থীর ভোটের পার্থক্য মাত্র ৩৫৬।

৩) বিজেপির মতো কংগ্রেসের তরফ থেকেও একটি কেন্দ্রে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করেছে কংগ্রেস। যে কেন্দ্রটি মাত্র ২৯০ ভোটের জন্য বিজেপির হাত থেকে ফসকে গিয়েছে। ওই কেন্দ্রটি হল মধ্যপ্রদেশের মাহিদপুর। এখানে জয়লাভ করেছেন কংগ্রেসের দীনেশ জৈন এবং পরাজিত হয়েছেন বিজেপির বাহাদগুড় সিং চৌহান।

৪) মধ্যপ্রদেশের ভাড়াশিভানি বিধানসভা কেন্দ্রে ভোট পুনর্গণনার পর মাত্র ৪৬ ভোটে জয়লাভ করেছেন বিজেপির প্রদীপ জয়সওয়াল। এই কেন্দ্রে পরাজিত হন কংগ্রেসের বিবেক প্যাটেল।

৫) এবারের এই বিধানসভা ভোটে সবচেয়ে কম মার্জিনে জয়লাভ করেছেন মধ্যপ্রদেশের শাজাপুরের বিজেপি প্রার্থী। এই বিধানসভা কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী অরুণ ভিমাওয়াত মাত্র ২৮ ভোটে গোল দিয়েছেন কংগ্রেসের হুকুম সিং কারাদাকে।