২৫ নভেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বর, দার্জিলিংয়ে দেখা যাবে অন্য মুহূর্ত, মিস করলে বড় লোকসান

Shyamali Das

Published on:

নিজস্ব প্রতিবেদন : পাহাড়ের টানে বছরের বিভিন্ন সময় পর্যটকরা দার্জিলিং (Darjeeling) মুখী হয়ে থাকেন। বছরের বিভিন্ন মরশুম পাহাড়ে রূপ বিভিন্ন রকম হয়, আর সেই বিভিন্ন রূপের মুগ্ধতা অনুধাবন করতে প্রায় প্রতিটি মরশুমেই পর্যটকরা ভিড় জমান। তবে যদি পর্যটকরা ২৫ নভেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে দার্জিলিং যান তাহলে আলাদা এক মুহূর্তের দেখা পেতে পারেন।

পর্যটকরা ওই সময় দার্জিলিং গেলে আলাদা এমন মুহূর্তের দেখা পাবেন ঘুম শহরে। আর একবার এই মুহূর্ত মিস করলে ফের অপেক্ষা করতে হবে এক বছর। আসলে আমরা যে মুহূর্তের কথা বলছি তাহলো ঘুম উৎসব (Ghum Utsav)। ঘুম শহরে আগামী ২৫ নভেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত আয়োজিত হতে চলেছে ঘুম উৎসবের। অন্যান্য বছর দুর্গাপুজো এবং কালীপুজো আগে হওয়ার কারণে এই উৎসব অনেক আগে হয়ে থাকে। কিন্তু এই বছর পুজো দেরিতে হওয়ায় উৎসব দেরিতে শুরু হচ্ছে।

ঘুম শহরে এই বছর তৃতীয়বারের জন্য আয়োজিত হতে চলেছে ঘুম উৎসব। মূলত দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়ে এবং স্থানীয় প্রশাসনের তরফ থেকে পর্যটন শিল্পের আরও প্রচারের জন্য এই উৎসবের আয়োজন করা হয়। এমনিতে দার্জিলিং, ঘুম সহ বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে যাওয়াই আলাদা আনন্দ থাকলেও ঘুম উৎসব সেই আনন্দকে আরও দ্বিগুণ করে দেয়। অন্যান্য বছরগুলিতেও ঘুম উৎসবের সময় বহু জায়গা থেকে পর্যটকদের আগমন হয়।

ঘুম উৎসবকে ঘিরে কেন এত উৎসাহ লক্ষ্য করা যায় পর্যটকদের মধ্যে? আসলে এই উৎসবে তুলে ধরা হয় স্থানীয়দের প্রতিভা, হস্তশিল্প, স্থানীয় বিভিন্ন খাবার-দাবারের রন্ধন প্রণালী ইত্যাদি। এছাড়াও দার্জিলিংয়ের বড় বড় সব চা বাগান দেখা, পর্যটকদের আনন্দ দেয় অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্টস ইত্যাদি। এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের রকমারি খাওয়া-দাওয়া, যা বছরের অন্যান্য সময় নাও মিলতে পারে।

ঘুম উৎসব চলাকালীন প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত্রি ৭:৩০ পর্যন্ত বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠান চলে। সপ্তাহান্তের দিনগুলিতে বিশেষ বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এছাড়াও যেদিন অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার দিনক্ষণ জানানো হয়েছে অর্থাৎ ১০ ডিসেম্বর বিশেষ অনুষ্ঠান রাখবে দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়ে।