Home Loan Interest: গ্রাহকদের মুখে মুচকি হাসি! গৃহ ঋণ নিয়ে বড় সুখবর দিল HDFC ব্যাঙ্ক

Prosun Kanti Das

Published on:

HDFC Bank gave great news to customers about Home Loan Interest: নিজের একটা বাড়ি করার শখ থাকে প্রায় সবারই। কিন্তু বর্তমানে সব কিছুরই বাজার মূল্য আকাশ ছোঁয়া। এই পরিস্থিতির সাথে তাল মিলিয়ে সঞ্চিত অর্থের উপর ভরসা করে বাড়ি তৈরি করা প্রায় অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে। বাড়ি তৈরি করতে গেলে, হোম লোন নেবার প্রয়োজন পড়ে। এবার সেই সমস্ত সাধারণ মানুষের মুখে হাসি ফুটবে। এইচডিএফসি ব্যাংকের তরফ থেকে সুদের হার কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে হোম লোনের ক্ষেত্রে (Home Loan Interest)। সুদের হার নির্ভর করে মার্জিনাল কস্ট অফ ফান্ড বেসড লেন্ডিং রেটের উপর। এইচডিএফসি ব্যাংক এমসিএলআর এর পরিমাণ কমানোর চেষ্টা করছে।

মার্জিনাল কস্ট অফ ফান্ড বেসড লেন্ডিং রেট বলতে বোঝায় গৃহীত লোন পরিশোধের জন্য নির্ধারিত সর্বনিম্ন সীমা। এই সীমার উপর ভিত্তি করেই নির্ধারিত হয় লোন নেওয়ার পর কত টাকা দিতে হবে মাসিক কিস্তি হিসেবে। এমসিএলআর এর পরিমাণ কমলে খুব স্বাভাবিকভাবে লোন পরিশোধের পরিমাণও অনেকটা কমে যায় (Home Loan Interest)। আবার এমসিএলআর এর পরিমাণ বাড়লে বেড়ে যায় লোন পরিষদের পরিমাণ। প্রতি মাসে দিন, মাস, বছরের উপর নির্ভর করে বিভিন্ন মেয়াদ যুক্ত লোনের ক্ষেত্রে এমসিএলআর এর পরিমাণ প্রকাশ্যে আনতে বাধ্য থাকে যেকোনো ব্যাংক। সেই নিয়ম মেনে, সম্প্রতি এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক তাদের বর্তমান এমসিএলআর এর পরিমাণ প্রকাশ্যে নেয়ে এল।

বর্তমানে এইচডিএফসি ব্যাংকের এমসিএলআর এর পরিমাণ বেশ কিছুটা কমানো হয়েছে ফলে খুব স্বাভাবিক নিয়মে, হোম লোনের ক্ষেত্রে ইএমআই পরিশোধের পরিমাণও কমে গেছে (Home Loan Interest) অনেকটা। বর্তমানে এই পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৮.৯৫ শতাংশ থেকে ৯.৩৫ শতাংশ মধ্যে। তবে ব্যাংকে ১ দিনের এমসিএলআর এর পরিমাণ ৮.৯৫ শতাংশ। কিন্তু ১ মাস, থেকে শুরু করে ৩ মাস মেয়াদ যুক্ত লোনগুলির ক্ষেত্রে এমসিএলআর এর কোন পরিবর্তন করেনি ব্যাংক। এই মেয়াদ যুক্ত লোনের ক্ষেত্রে এমসিএলআর এর পরিমাণ আগে যা ছিল এখনো তাই রয়েছে এইচডিএফসি ব্যাংকে।

আরও পড়ুন 👉 Multiple Sim Card Rules: একাধিক সিম কার্ড থাকলেই পকেট থেকে খসবে বাড়তি টাকা? লাগবে ফি? বিজ্ঞপ্তি Trai-এর

মাসিক মেয়াদের ক্ষেত্রে এমসিএলআর এর পরিমানে কোনো রকম পরিবর্তন না হলেও এইচডিএফসি ব্যাংকেরর পর থেকে এনসিএলআর এর পরিমাণ কমিয়েছে বাৎসরিক মেয়াদ যুক্ত সুদগুলির ক্ষেত্রে। ১ থেকে ২ বছরের মেয়াদ যুক্ত লোনের ক্ষেত্রে এমসিএলআর এর পরিমাণ কমানো হয়েছে প্রায় ৫ পয়েন্ট। বর্তমানে এমসিএলআর এর পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৯.৩০ শতাংশ। ৩ বছরের মেয়াদের ক্ষেত্রেও এমসিএলআর এর পরিমাণ কমে দাঁড়িয়েছে ৯.৩৫ শতাংশ। কিন্তু ৩ বছরের বেশি মেয়াদযুক্ত লোনের ক্ষেত্রে কমানো হয়নি এমসিএলআর এর পরিমাণ।

লোন নেবার পর সুদের হার নির্ভর করে আরো একটি বিষয়ের উপর। তা হলো, রেপো রেট। আরবিআই এর পক্ষ থেকে এই বছরের জন্য রেপো রেটের পরিমাণে কোনরকম পরিবর্তন করা হয়নি। আগের বছরের এর মত এখনো পর্যন্ত রেপো রেট রয়েছে ৬.৫০ শতাংশ। ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে শেষবারের জন্য রেপো রেট পরিবর্তন করা হয়েছিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া তরফ থেকে। তারপর থেকে প্রায় ১৬ মাস ধরে একটানা একই রেপো রেট চলে আসছে সমস্ত ব্যাংকগুলিতে। ব্যাংকের তরফ থেকে রেপো রেট বা এমসিএলআর এর তেমন কোন পরিবর্তন করা না হলেও, সামান্য যেটুকু পরিবর্তন হয়েছে তার উপর ভিত্তি করে কিছুটা হলেও কমেছে হোম লোনের ইএমআই পরিশোধের পরিমাণ (Home Loan Interest)। তাতেই উপকৃত হবেন। এমনটাই মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।