Identify fake note: পকেটে ৫০০ টাকার নোট রয়েছে, কিভাবে চিনবেন সেটা আসল নাকি নকল

Prosun Kanti Das

Published on:

How to identify fake 500 rupee notes: বর্তমানে বাজারে আসল এবং জাল নোটের মধ্যে পার্থক্য করা বেশ কঠিন হয়ে পড়েছে (Identify fake note)। জালিয়াতরা ক্রমশ তাদের জাল নোট তৈরির কৌশল উন্নত করে চলেছে। তাই, আমাদের সবাইকে আসল এবং জাল নোট চিনতে সক্ষম হতে হবে। রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া এই বিষয়ে একাধিকবার ব্যবহারকারীদের সতর্ক করেছে। এরপরও নকল নোট বিভিন্ন উপায়ে বাজারে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা ক্রমাগত বেড়েই চলেছে।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট প্রায় চোখে পড়ছে যাতে ৫০০ টাকার একটি বিশেষ নোটকে জাল দাবি করা হচ্ছে। বহু গ্রাহক জানিয়েছেন যে ব্যাঙ্ক এই নোট নিতে অস্বীকার করছে৷ সেই পোস্টের পর থেকেই ৫০০ টাকার নোট নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে গোটা নেট দুনিয়াতে (Identify fake note)। তাহলে কিভাবে চিনে নিতে হবে আসল নোট?

আশা করি সবারই মনে আছে যে আরবিআই ২০১৬ সালে ৫০০ টাকার পুরনো নোট বাতিল করে দিয়েছিল। সেই কারণে বাজারে আসলো নতুন ৫০০ টাকার নোট৷ জালিয়াতি রোধ করাই ছিল এর মূল উদ্দেশ্য। সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বাজারে ছড়িয়ে পড়া নকল ও কালো টাকার উপর নিয়ন্ত্রণ আনতে (Identify fake note)। কিন্তু বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি নির্দিষ্ট রকমের ৫০০ টাকার নোটকে জাল বলা হচ্ছে।

আপনারা হয়তো দেখবেন যে সোশ্যাল মিডিয়ায় বলা হয়েছে, স্টার (*) থাকা ৫০০ টাকার নোট কিন্তু আসল না৷ এই বিশেষ নোট দোকারদার থেকে ব্যাঙ্ক সবাই নিতে অস্বীকার করছে৷ পোস্টটি ভাইরাল হতেই সবার মধ্যে জাল নোট নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে। কোনটা আসল কোনটা জাল নোট এই নিয়ে একাধিক প্রশ্ন উঠছে সকলের মনে (Identify fake note)৷

তবে এইসব গুজবে কোন দেবেন না। গুজবের কারণে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক বিশেষ পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছে৷ প্রসঙ্গত, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক কিন্তু বলেছে যে স্টার চিহ্ন থাকা নোট পুরনো নোট, নোট বন্ধ করার পর এটি চালু করা হয়েছে। এই চিহ্ন একটি বিশেষ চিহ্ন এবং এই চিহ্ন থাকা নোট নকল না৷ মহাত্মা গান্ধি সিরিজের নতুন নোটের লেটার ‘E’ দিয়ে শুরু হয় ৷ এরকম বেশ কিছু নোটে স্পেশ্যাল ক্যারেক্টার ‘*’ যুক্ত করা হয়েছে ৷ ১০,২০,৫০ ও ১০০ টাকার নোটেও এই স্টার চিহ্ন রয়েছে ৷