বিনা নিমন্ত্রণে বিয়ে বাড়িতে ভোজ, ধরা পড়তেই সব বাসন মাজল MBA ছাত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন : বিয়ে বাড়িতে অনেক সময় ‘বিনবুলায়ে মেহমান’ দেখতে পাওয়া যায়। এই সকল অনিমন্ত্রিত অতিথিদের বিয়ে বাড়িতে হাজির হওয়ার উদ্দেশ্য একটাই কব্জি ডুবিয়ে খাওয়া। অনেক বিয়ে বাড়িতে এই ধরনের ঘটনা দেখা গেলেও সেই ভাবে তেমন পদক্ষেপ গ্রহণ করতে দেখা যায় না কর্তাদের। তবে এবার এক এমবিএ ছাত্রের ক্ষেত্রে যা ঘটলো তার রীতিমতো হাস্যকর।

সম্প্রতি ওই এমবিএ ছাত্রটির বিনা নিমন্ত্রণে একটি বিয়ে বাড়িতে যাওয়া এবং তারপর যে ঘটনা ঘটেছে সেই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হওয়ার পর ভাইরাল হয়। আসলে বিনা নিয়ন্ত্রণে খেতে আসার পর ধরা পরতেই তাকে এঁটো বাসন পরিষ্কার করতে হয়। সেই ভিডিও আপলোড হতেই তা ভাইরাল হয়।

এমন ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের ভোপালে। ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে এক যুবক বসে বাসন মাজছেন। জানা গিয়েছে ওই যুবক একজন এমবিএ ছাত্র এবং বিয়ে বাড়িতে এসে বিনা নিমন্ত্রণে ভালো খাবার খাওয়ার লোভে এসেছিলেন। তবে যেমনটা ভেবেছিলেন তেমনটা হয়নি, বরং বিয়ে বাড়ির লোকজনের হাতে ধরা পড়ে তাকে এই কাজ করতে হয়।

ভাইরাল হওয়ার ভিডিও ক্লিপ থেকে জানা গিয়েছে ওই এমবিএ ছাত্রের বাড়ি জব্বলপুরে। সর্বভারতীয় এক সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে, ওই যুবক বিনা নিমন্ত্রণে বিয়ে বাড়িতে খেতে এসেছিলেন। তারপর তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলার পর বাসন মাজার কাজ করানো হয় এবং সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করা হয়।

তবে বিষয়টি এতটা গুরুত্ব হবে তা ওই এমবিএ ছাত্র যেমন বুঝতে পারেননি ঠিক তেমনি আবার অনেকেই মতামত পোষণ করেছেন, বিনা নিমন্ত্রণে বিয়ে বাড়িতে খেতে গিয়ে ধরা পরার পর ওই যুবকের সঙ্গে যে কাজ করা হয়েছে এবং ভিডিও তুলে যেভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করা হয়েছে তাও নিন্দনীয়।