Kolkata Bangladesh New Train Route: আরো সহজে হবে কলকাতা-বাংলাদেশ যাতায়াত, ৭৭ বছর পর ফের এই রুটে চালু হচ্ছে নতুন ট্রেন

Shyamali Das

Published on:

নিজস্ব প্রতিবেদন : ভারত ও বাংলাদেশ শুধু প্রতিবেশী দেশ, এই দুই দেশ প্রতিবেশী দেশ নয়, পাশাপাশি এই দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক নিবিড়। আবার বাংলাদেশের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের সম্পর্ক যেন আরও একটি নিবিড়। বাংলাদেশ থেকে ভারতের বিভিন্ন জায়গায় প্রতিদিন বিপুলসংখ্যক মানুষের আগমন হয়ে থাকে, আর এই আগমনের কেন্দ্রবিন্দু যেন পশ্চিমবঙ্গ।

বাংলাদেশ থেকে পশ্চিমবঙ্গ অথবা পশ্চিমবঙ্গ থেকে বাংলাদেশ যাতায়াতের জন্য বর্তমানে তিনটি ট্রেন যাতায়াত করে। যে তিনটি ট্রেন হল মৈত্রী, মিতালী ও বন্ধন এক্সপ্রেস। এই তিনটি ট্রেন এবং এই তিনটি ট্রেনের রুট ও টাইম টেবিল সম্পর্কে অধিকাংশ যাত্রীরাই জানেন। তবে এর বাইরে নতুন একটি রুট (Kolkata Bangladesh New Train Route) খুলে যাচ্ছে দুই দেশের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা আরো সহজ করার জন্য।

বর্তমানে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে যে তিনটি ট্রেন চলে সেই তিনটি ট্রেনের মধ্যে একটি ঢাকা থেকে কলকাতা এবং কলকাতা থেকে ঢাকা, ঢাকা থেকে নিউ জলপাইগুড়ি এবং নিউ জলপাইগুড়ি থেকে ঢাকা ও খুলনা থেকে কলকাতা এবং কলকাতা থেকে খুলনা যাতায়াত করে থাকে। এই তিনটি রুটের পাশাপাশি এবার নতুন যে রুটটি চালু হচ্ছে সেটি হল রাজশাহী থেকে কলকাতা এবং কলকাতা থেকে রাজশাহী (Rajshahi-Kolkata-Rajshahi Train)।

আরও পড়ুন 👉 Nuclear Weapons: পরমাণু অস্ত্রে রাশিয়ার ধারেকাছে নেই কেউ! জানুন কত নম্বরে ভারত, কত নম্বরে চীন

রাজশাহী থেকে কলকাতা এবং কলকাতা থেকে রাজশাহী এই ট্রেন অবশ্য প্রথম চালু হতে চলেছে তা নয়। এই ট্রেন আগেও যাতায়াত করতো, কিন্তু তা পরবর্তীতে বন্ধ হয়ে যায়। ৭৭ বছর পর নতুন করে এই ট্রেন পরিষেবা চালু হতে চলেছে। রাজশাহী থেকে কলকাতা এবং কলকাতা থেকে রাজশাহী ট্রেন পরিষেবা পুনরায় চালুর বিষয়ে জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাজশাহী থেকে কলকাতা ট্রেন পরিষেবা সম্পর্কে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, এই রুটে আগে ট্রেন চলাচল করতো। শুধু এই রুটে নয়, এর পাশাপাশি চট্টগ্রাম থেকে কলকাতা, গেদে থেকে দর্শনা সহ আরো বেশ কয়েকটি রুটে ট্রেন চলাচল করতো। তবে ১৯৬৫ সালে ভারত পাকিস্তান যুদ্ধের সময় এই সকল রুটের ট্রেন পরিষেবা বন্ধ হয়ে যায়। সম্প্রতি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারত সফরে এসেছিলেন এবং সেই সকল থেকে ফেরার পর এই সমস্ত রুটে পুনরায় ট্রেন পরিষেবা চালু হবে বলে দাবি করেছেন।