Jio Cinema: ফ্রিতে IPL দেখছে দেশ, আর এদিকে ৪০০০ কোটি টাকা ঢুকিয়ে নিলেন আম্বানি!

Antara Nag

Published on:

Mukesh Ambani is earning crores by showing IPL even free on Jio Cinema: জিও রিলায়েন্সের কর্ণধার তিনি। ব্যবসাকে কিভাবে শীর্ষে তোলা যায় তার কারসাজি জানা আছে আম্বানির। যার প্রমাণ পাওয়া গেছে কোম্পানি লঞ্চ হওয়ার প্রথমেই। গ্রাহকদের রাশ টানতে জিও চালু করার সময়ে বিনামূল্যে কলিং এবং ডেটার অফার দিয়েছিল জিও রিলায়েন্স। তবে ক্ষতি করে তিনি ব্যবসা শুরু করেননি। এই অফারের ভিতরেই তিনি লাভ রেখেছেন। তেমনি সাম্প্রতিক বিনামূল্যে আইপিএল ম্যাচ দেখিয়ে ৪ হাজার কোটি টাকা আয় করলেন মুকেশ আম্বানি। কিভাবে জানেন? জেনে নিন ট্যাকটিস।

এপ্রিল থেকেই শুরু হয়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ। যা দেখার জন্য প্রতিবছর মুখিয়ে থাকেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। সন্ধ্যার আগেই সমস্ত কাজ ছেড়ে আইপিএল লিগ দেখতে বসে পড়ছেন টিভির সামনে। তবে আবার কেউ কেউ আইপিএল ম্যাচ দেখছেন জিও সিনেমায়। এর জন্য আলাদা খরচ নয়, বিনামূল্যে আইপিএল দেখা যাচ্ছে জিও সিনেমায় (Jio Cinema)। তবে কি মুকেশ আম্বানি ফ্রিতে গ্রাহকদের আইপিএল ম্যাচ দেখার সুযোগ করে দিচ্ছেন? আজ্ঞে না, তা নয়, বিনাপয়সার মাধ্যমেই যে তিনি তার লাভাংশ ঠিকই তুলে নিচ্ছেন। প্রকাশ্যে এসেছে সেই কৌশল।

প্রসঙ্গত, জিও রিলায়েন্সের মালিক ৫ বছরের জন্য Viacom18-এর মাধ্যমে IPL-এর ডিজিটাল মিডিয়া রাইটস অধিগ্রহণ করেছেন। এল জন্য তিনি ব্যয় করেছেন ২৩৭৫৮ কোটি টাকা। হিসাব অনুযায়ী এই খাতে তার প্রতিবছর ব্যয় হচ্ছে ৪৭৫০ কোটি টাকা। প্রশ্ন উঠেছে এত কোটি টাকা খরচ করেও কিভাবে তিনি বিনামূল্যে জিও সিনেমায় (Jio Cinema) আইপিএল দেখার সুযোগ দিচ্ছেন?

আরও পড়ুন ? IPL 2024: IPL-এ কোন দল কতবার ২০০-র বেশি রান তাড়া করে জিতেছে?

আসলে আইপিএল দেখানোর জন্য আলাদা প্যাক না লঞ্চ করে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা করেছেন মুকেশ আম্বানি। যা তার ব্যবসাকে সম্প্রসারণ করছে। এর ফলে বিনামূল্যে আইপিএল দেখিয়ে যেমন নাম কামাচ্ছেন, তেমন অপরদিকে ব্যবসার ক্ষতি না করে উল্টে ভালো অ্যামাউন্ট আয়ও করতে পারছেন। কিভাবে? বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে। রিপোর্ট সূত্রে, আইপিএল লিগ চলাকালীন যে বিজ্ঞাপন দেয় সেই বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে ৪০০০ কোটি টাকার বেশি আয় করছেন আম্বানি। শুধু তাই না, এই পরিকল্পনা দীর্ঘমেয়াদি করার জন্য কোম্পানির সাথে বিজ্ঞাপনদাতাদের সংযুক্ত করে রাখার জন্য জিও সিনেমায় (Jio Cinema) বিজ্ঞাপনের খরচও কম রেখেছে জিও সংস্থা।

খবর রয়েছে, আইপিএল প্রচারে স্পনসর রয়েছে প্রায় ১৮টি এবং রয়েছে ২৫০টি বিজ্ঞাপন দাতা। যে তালিকায় রয়েছে Dream11, Parle, Bitrania এবং HDFC ব্যাঙ্কের মতো বড় বড় সংস্থা। এই ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপন থেকে কোটি কোটি টাকা আয় করছেন রিলায়েন্স কর্ণধার। শুধু ব্র্যান্ড স্পটলাইট থেকে নয়, পাশাপাশি ডেটা প্যাক থেকেও লাভ অর্জন করছেন জিও। কারন আইপিএল লিগ দেখতে গেলে দরকার ইন্টারনেটের। এক্ষেত্রে ইন্টারনেট খরচ বেশি। ফলে ম্যাচ দেখার জন্য ব্যবহারকারীদের ইন্টারনেটের প্রয়োজন পড়ছে আর সেই ইন্টারনেটের জন্য রিচার্জ করতে হচ্ছে জিও ব্যবহারকারীদের। যা থেকে ভালো মুনাফা অর্জন করছে জিও সংস্থা। গত বছরেও বিনা পয়সায় আইপিএল ম্যাচ দেখিয়ে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে আয় করেছিলেন ৩২৩৯ কোটি টাকা। তবে চলতি বছরে তা বৃদ্ধি পেয়ে ৪০০০-এর কাছে চলে গিয়েছে। বাড়ছে গ্রাহক সংখ্যাও।