পরিযায়ী শ্রমিকরা অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে রাজ্যে ফিরতে আবেদন করুন অনলাইনে, রইলো পদ্ধতি

দেখে নেওয়া যাক অন্ধ্রপ্রদেশে আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিক অথবা অন্যান্যরা ফেরার বা আসার জন্য কিভাবে অনলাইনে আবেদন করবেন।

নিজস্ব প্রতিবেদন : করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ভারতে মার্চ মাসের ২৪ তারিখ জারি হয়েছে লকডাউন। দেখতে দেখতে এই লকডাউন পা দিয়েছে তৃতীয় পর্যায়ে, পেরিয়ে গেছে ৪৪ টা দিন। আর এমত অবস্থায় বিভিন্ন রাজ্য থেকে অন্যান্য রাজ্যে কাজ করতে যাওয়া শ্রমিকরা, চিকিৎসা করাতে যাওয়া রোগীরা অথবা পড়ুয়ারা ও পর্যটকরা আটকে পড়ে অসহায় অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন। সবথেকে দুর্বিষহ পরিস্থিতি পরিযায়ী শ্রমিকদের, তারা বর্তমানে কাজ হারিয়ে অসহায় অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন। যে কারণে তারা বারবার লকডাউনের আইন ভেঙে ঘরমুখী হওয়ার চেষ্টা করছেন।

আর এই পরিস্থিতির বিচারে পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরার অনুমতি দেয় কেন্দ্র সরকার এপ্রিল মাসের ২৯ তারিখ। কিন্তু তারপরেও প্রশ্ন উঠতে থাকে তারা কিভাবে বাড়ি ফিরবেন? বারবার দাবি দাওয়া উঠায় থাকায় ৩০ তারিখ কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে শর্তসাপেক্ষে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন চালানোর কথা ঘোষণা করে। এরপর ১লা মে শ্রমিক দিবসের দিন থেকে প্রথম চালু হয় শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনগুলি। কিন্তু এই ট্রেনে চাপার জন্য কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে যে শর্ত দেওয়া হয় তার মধ্যে প্রথম শর্ত হল, যে রাজ্য থেকে শ্রমিকরা ফিরবেন এবং যে রাজ্যে আসবেন দুই রাজ্যের সম্মতি। তাহলে এই সম্মতি কিভাবে মিলবে?

এর আগে আমরা কর্ণাটক রাজ্যে আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকদের বা অন্যান্যদের অনলাইনে আবেদন করার পদ্ধতি জানিয়েছিলাম। আর এবার চলুন দেখে নেওয়া যাক অন্ধ্রপ্রদেশে আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিক অথবা অন্যান্যরা ফেরার বা আসার জন্য কিভাবে অনলাইনে আবেদন করবেন।

অন্ধ্রপ্রদেশে আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিক অথবা অন্যান্য রাজ্যে ফেরার জন্য আবেদন করার ক্ষেত্রে প্রথমে যেতে হবে অন্ধ্রপ্রদেশ সরকারের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে অথবা সরাসরি ক্লিক করতে পারেন http://spandana1.ap.gov.in/Registration/onlineRegistration লিঙ্কে। এখানে ক্লিক করে আপনাকে প্রথমেই বেছে নিতে হবে আপনি অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে অন্য রাজ্যে যেতে চাইছেন নাকি অন্য রাজ্য থেকে অন্ধ্রপ্রদেশে আসতে চাইছেন। তারপর সরকারি ওই ওয়েবসাইটে দেওয়া বিবরণ অনুযায়ী আপনাকে সমস্ত তথ্য দিতে হবে।

অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে অন্যান্য রাজ্যে যাওয়া অথবা অন্যান্য রাজ্য থেকে অন্ধ্রপ্রদেশে আসা এই দুটি অপশনের মধ্যে একটি বেছে নেওয়ার পর দিতে হবে আপনার নাম, আধার নম্বর, মোবাইল নম্বর, বয়স, লিঙ্গ। তারপর দিতে হবে আপনার অন্ধ্রপ্রদেশের ঠিকানা। যে রাজ্যে যে জায়গায় যেতে চাইছেন অথবা যেখান থেকে আসতে চাইছেন তার ঠিকানা।

এরপর আপনাকে ‘Others Information’ অপশনে জানাতে হবে আপনি পরিচয় শ্রমিক/তীর্থযাত্রী/পর্যটক/পড়ুয়া/অফিস কর্মচারী/অন্য কিছু, কোন পর্যায়ের অন্তর্ভুক্ত।

এরপর আপনার স্বাস্থ্য সম্পর্কে বেশ কিছু তথ্য চাওয়া হবে ওই ওয়েবসাইটে। যেমন আপনার জ্বর, সর্দি কাশি ইত্যাদি কোন উপসর্গ আছে কিনা। সবকিছু সঠিকভাবে উত্তর দেওয়ার পর Submit করতে হবে। পাশাপাশি আপনার পরিচয় পত্র ও পাসপোর্ট ছবি দিতে হবে পরবর্তী পর্যায়ে।

এগুলি হয়ে যাওয়ার পর অন্ধ্রপ্রদেশ সরকার সবকিছু বিবেচনা করে আপনাকে অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে অন্য রাজ্যে যাওয়ার অথবা অন্য রাজ্য থেকে অন্ধ্রপ্রদেশে আসার অনুমতি দিতে পারে।