নিম্নচাপের জেরে টানা ৩ দিন বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস দক্ষিণবঙ্গে

নতুন করে তৈরি হওয়া নিম্নচাপের জেরে দক্ষিণবঙ্গের প্রায় প্রতিটি জেলাতেই বজায় থাকবে এই পরিস্থিতি আগামী ৪৮ থেকে ৭২ ঘণ্টা।

নিজস্ব প্রতিবেদন : শুক্রবার দুপুর হতে কালো মেঘে ঢাকা পড়ে দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলা। শুরু হয় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ মুষলধারে বৃষ্টি। বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি পাশাপাশি ছিল ঝোড়ো হওয়া। আর এমনই পরিস্থিতি বজায় থাকবে টানা ৩ দিন, অন্ততপক্ষে হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস এমনটাই। নতুন করে তৈরি হওয়া নিম্নচাপের জেরে দক্ষিণবঙ্গের প্রায় প্রতিটি জেলাতেই বজায় থাকবে এই পরিস্থিতি আগামী ৪৮ থেকে ৭২ ঘণ্টা। বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টির পাশাপাশি বইবে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হওয়া।

দিন কয়েক ধরেই কালবৈশাখীর দাপট দেখা গিয়েছে কলকাতা, হুগলি, হাওড়া, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর, মুর্শিদাবাদ, দক্ষিণ দিনাজপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, বীরভূম, মালদা এসব জেলায়।আর আগামী ২৪ থেকে ৭২ ঘন্টায় একই রকম আবহাওয়া বজায় থাকবে এই সকল জেলাগুলিতে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের তরফ থেকে। আর এই ঝড় বৃষ্টির মূলে রয়েছে দক্ষিণ আন্দামান ও সংলগ্ন দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে শুক্রবার সকালে ঘনীভূত হওয়ার নিম্নচাপ।

আবহবিদরা অনুমান করছেন আগামী ৪৮ ঘন্টা থেকে ৭২ ঘন্টার মধ্যে ঘনীভূত হওয়া এই নিম্নচাপ শক্তি সঞ্চয় করে গভীর ঘূর্ণাবর্তে পরিণত হতে পারে। যদিও এই নিম্নচাপের শক্তি সঞ্চয় খুব ধীরগতিতে হবে বলে জানিয়েছেন তারা। যে কারণে মে মাসের ২ তারিখ পর্যন্ত হালকা বৃষ্টির পাশাপাশি ৩ তারিখ থেকে বৃষ্টি পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যদিও এই নিম্নচাপের জেরে রাজ্যে বৃষ্টি পারলেও বর্তমান পরিস্থিতিতে কোনো রকম সতর্কবাণী দেওয়া হয়নি রাজ্যের বাসিন্দাদের জন্য। পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হচ্ছে, পরবর্তী ক্ষেত্রে কোন রকম সর্তকতা অবলম্বন করার বিষয়ে থাকলে তা অফিসের তরফ থেকে জানানো হবে।