কতদিন চলবে কড়া লকডাউন, জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদন : রাজ্যে উত্তরোত্তর করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় আগামীকাল অর্থাৎ ৯ই জুলাই বিকাল ৫ টার পর থেকে রাজ্যের জেলাগুলির কনটেনমেন্ট ও বাফার জোনে কড়া লকডাউন জারি হবে। পুনরায় লকডাউন জারি করার বিষয়ে মঙ্গলবার বিকালে রাজ্যের অতিরিক্ত মুখ্য সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় একটি নির্দেশিকা জারি করেন। যে নির্দেশিকা রাজ্যের প্রতিটি জেলার জেলাশাসক ও জেলা প্রশাসনকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। তবে এই নির্দেশিকায় স্পষ্টভাবে উল্লেখ ছিল না কতদিন পর্যন্ত চলবে এই নতুন কড়া লকডাউন। আর এবিষয়েই বুধবার নবান্নে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় জানালেন কতদিন পর্যন্ত চলবে পুনরায় জারি হওয়া লকডাউন চলবে রাজ্যের কনটেনমেন্ট ও বাফার জোন এলাকায়।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন নবান্নে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানান, “সাত দিনের জন্য চলবে এই লকডাউন। পরে পরিস্থিতি বুঝে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আপাতত আগামী সাত দিন কড়া নজর রাখা হবে এই সকল এলাকায়। ছোট ছোট এলাকাকে কনটেনমেন্ট ও বাফার জোন করা হয়েছে। সাত দিন পর পরিস্থিতি দেখে আবার নতুন সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এদিন মাস্ক নিয়ে নতুন করে নির্দেশ দিতে দেখা গেল পুলিশ প্রশাসনকে। তিনি রাজ্যের পুলিশদের নির্দেশ দেন, “মাস্ক পরে বাইরে বেরোতে হবে। মাস্ক পরে বাইরে বের হওয়াটা বাধ্যতামূলক। যদি কেউ মাস্ক না পড়ে বাইরে বের হয় তাহলে তাকে বাড়ি পাঠিয়ে দাও।”

নবান্ন সূত্রে যে খবর পাওয়া গেছে তাতে জানা গিয়েছে, রাজ্যের ৯টি জেলা কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার, উত্তর দিনাজপুর ও মালদার কনটেনমেন্ট ও বাফার জোন চিহ্নিত এলাকাগুলিতে আগামীকাল থেকে জারি হবে নতুন করে লকডাউন। লকডাউন সম্পর্কিত নির্দেশিকা অনুসারে ওই সকল এলাকায় আপাতত আগামী সাত দিন সরকারি ও বেসরকারি অফিস, যাবতীয় দোকান পত্র অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবা ছাড়া, গণপরিবহণ বন্ধ থাকবে। পাশাপাশি বাড়ি থেকে বের হওয়ার ক্ষেত্রেও থাকছে নিষেধাজ্ঞা এবং বেশ কিছু এলাকায় কেবলমাত্র সকাল ১১টা পর্যন্ত সবজির দোকান খুলে রাখার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।