Abhijit Gangopadhyay: বিপাকে প্রাক্তন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়! মমতাকে নিয়ে মন্তব্যের জের, ফেঁসে গেলেন!

Shyamali Das

Published on:

নিজস্ব প্রতিবেদন : বিচারপতি হিসাবে গোটা রাজ্যের পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন অংশে নিজের নাম কামিয়ে ছিলেন অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Abhijit Gangopadhyay)। তার একের পর এক রায় রীতিমতো হিলিয়ে দিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে। এরই মধ্যে লোকসভা ভোটের আগে আচমকা তিনি বিচারপতির পদ থেকে ইস্তাফা দিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়ে এখন তমলুকের প্রার্থী।

বিজেপির প্রার্থী হওয়ার পর অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে বিভিন্ন সময়ে বিতর্কে জড়াতে দেখা গিয়েছে তার বিতর্কিত সব মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে। আর এবারও বিতর্কে জড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Bandopadhyay) নিয়ে একটি মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে, শুধু বিতর্কে জড়ানো নয় এর পাশাপাশি তিনি বিপাকে পড়েছেন।

অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় গত ১৫ মে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন। হলদিয়ার এক সভায় সেই বিতর্কিত মন্তব্য করার পরিপ্রেক্ষিতে তৃণমূলের তরফ থেকে নির্বাচন কমিশনে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে নালিশ জানানো হয় এবং তার প্রার্থীপদ বাতিল করার আবেদন জানানো হয়। আর এবার এই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতেই পদক্ষেপ নিল কমিশন।

আরও পড়ুন ? Abhijit Gangopadhyay’s Property Details: ২০২২-২৩-এ রোজগার বেড়ে প্রায় দ্বিগুণ! এখন কত টাকার মালিক প্রাক্তন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়

নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে একটি শোকজ নোটিশ পাঠানো হয়েছে। যেখানে বলা হয়েছে, আদর্শ আচরণবিধি ভঙ্গ করার জন্য কেন তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে না তা জানাতে হবে। নির্বাচন কমিশনের শোকজের জবাব দেওয়ার জন্য অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে সময় দেওয়া হয়েছে আগামী ২০ মে বিকেল ৫টা পর্যন্ত।

আগামী ২৫ মে রয়েছে তমলুকের লোকসভা নির্বাচন। সেই লোকসভা নির্বাচনের আগে এইভাবে নির্বাচন কমিশনের শোকজের মুখোমুখি হওয়া বিজেপি প্রার্থী অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের কাছে বিপাক বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক মহলের বিশেষজ্ঞরা। সবচেয়ে বড় বিষয় হলো, নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, যদি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের থেকে পাওয়া উত্তর না হয় তাহলে তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হতে পারে।