India Bangladesh Shipping: কপাল খুলল মুর্শিদাবাদের! ৬০ বছর পর খুলল বাংলাদেশে ব্যবসার নতুন পথ

নিজস্ব প্রতিবেদন : ব্যবসা-বাণিজ্য হোক অথবা অন্য কারণে দুই দেশের মধ্যে যোগাযোগ দিন দিন আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে। ভারত বাংলাদেশের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থায় এমনই সব পরিবর্তন আসতে দেখা যাচ্ছে ইদানিংকালে। ঠিক সেই রকমই এবার ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে একটি নদী পথ (India Bangladesh Shipping) খুলে গেল। এই নদী পথ ৬০ বছর ধরে বন্ধ ছিল।

৬০ বছর ধরে বন্ধ থাকা নদী পথ পুনরায় খুলে যাওয়ার ফলে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য আরও উন্নত হবে। নতুন করে সোমবার যে নদী পথ খুলল তাতে বীরভূম, ঝাড়খণ্ডের পাথর শিল্প আরও উন্নত হবে। আরও সহজে এই সকল এলাকা থেকে অনেক কম সময়ে এবং কম খরচে পাথর রপ্তানি করা যাবে বাংলাদেশে। এর ফলে দুই দেশের ব্যবসায়ীরা অনেক সুবিধা পাবেন।

৬০ বছর পর পরিবহন ব্যবস্থায় পুনরায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন এলো মূলত বাংলাদেশের রাজশাহী গোদাগাড়ী উপজেলার সুলতানগঞ্জ এবং মুর্শিদাবাদের ধুলিয়ান এলাকায় থাকা মায়া নৌবন্দর দিয়ে পুনরায় পরিবহন ব্যবস্থা চালু হওয়ার কারণে। সোমবার পরীক্ষামূলকভাবে নৌপরিবহন চালু করা হলো। এই নৌপরিবহন চালু হওয়ার ফলে উপকৃত হবেন দুই দেশের ব্যবসায়ীরা। এর পাশাপাশি মুর্শিদাবাদের কপাল আরও খুলবে।

আরও পড়ুন 👉 India Bangladesh New Bus Service: আরও সহজ হচ্ছে ভারত বাংলাদেশ ভ্রমণ, এই তিন রুটে চালু হতে চলেছে তিনটি বাস

৬০ বছর পর এই নদীপথে পুনরায় নৌপরিবহন শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই সুলতানগঞ্জ নৌবন্দর থেকে ১১ মেট্রিক টন কাপড় নিয়ে যাওয়া হয় মায়া নৌবন্দরে। এমভি সাইফ সিয়াম শাফিন নামে একটি জাহাজ এই বিপুল পরিমাণ কাপড় নিয়ে বাংলাদেশ থেকে ভারতে আসে। অন্যদিকে মায়াবন্দর থেকে ১০০ মেট্রিক টন পাথর নিয়ে সুলতানগঞ্জের দিকে যাত্রা শুরু করে অন্য একটি জাহাজ।

এই নৌবন্দর চালু হওয়ার ফলে ভারত থেকে খুব সহজেই এবার পাথর সহ অন্যান্য খাদ্য সামগ্রী বাংলাদেশে রপ্তানি করা যাবে। অন্যদিকে বাংলাদেশের বিভিন্ন জিনিসপত্র সহজেই আনা যাবে ভারতে। ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে এই নৌপরিবহনের ফলে খরচ কম এবং সময় কম লাগার কারণে উপকৃত হবেন ব্যবসায়ীরা। অন্যদিকে মুর্শিদাবাদের গুরুত্ব আরও বেড়ে যাবে তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই।