৫ দফা ভোটের পর আত্মবিশ্বাসী অমিত শাহ জানালেন কত আসন পাচ্ছে বিজেপি

নিজস্ব প্রতিবেদন : রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে ৮ দফার মধ্যে ৫ দফা ইতিমধ্যেই সমাপ্ত হয়েছে। আর এই পাঁচ দফা নির্বাচনেই শতাধিক আসনে জয় নিশ্চিত করে নিয়েছে বিজেপি। এমনটাই দাবি বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা অমিত শাহ থেকে রাজ্যের একাধিক নেতা নেত্রীদের। শুভেন্দু অধিকারী গতকাল জানিয়েছেন, ‘জয় নিশ্চিত আর কয়েকটা সিট পেলেই ম্যাজিক ফিগার’। আর এবার একইভাবে অমিত শাহ জানিয়ে দিলেন পাঁচ দফা ভোটে কত আসন পাচ্ছে বিজেপি।

রবিবার উত্তর পূর্বস্থলীর জামালপুর ময়দানে রাজনৈতিক সভা করতে আসেন অমিত শাহ। আর সেই সভা থেকেই তিনি দাবি করলেন, “রাজ্যে এখনও পর্যন্ত যে পাঁচ দফা নির্বাচন হয়েছে সেই পাঁচ দফা নির্বাচনে বিজেপি ১২২টি আসনে জয় নিশ্চিত করে ফেলেছে।” অমিত শাহের এই দাবি অনুযায়ী পঞ্চম দফার নির্বাচনে বিজেপি কমকরে ৪৫টির মধ্যে ২২টি আসন পাচ্ছে। কারণ এর আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চতুর্থ দফা নির্বাচনের পর দাবী করতে দেখা গিয়েছিল, ‘বিজেপি চার দফা নির্বাচনে সেঞ্চুরি পার করে দিয়েছে।’

এদিনের সভায় অমিত শাহকে প্রথম থেকেই আক্রমণাত্মক ভাবেই দেখা যায়। অমিত শাহের সভায় বক্তব্য রাখার সময় রাজ্যের মডেল সম্বন্ধে বলতে গিয়ে বলেন, ‘এখানকার সরকার বন্ধুক গুলির মডেল চালু করেছে। আর এসবের জোরেই সরকার চালাচ্ছে। কিন্তু এই মডেল আর চলবে না।’

এর পাশাপাশি এদিন অমিত শাহ নন্দীগ্রামের ভোটের ভবিষ্যদ্বাণীও করেন। তিনি বলেন, “নন্দীগ্রামে মমতা দিদির হার নিশ্চিত। ওখানে শুভেন্দু অধিকারীই জিতছেন।” পাশাপাশি অমিত শাহ বলেন, “নেতা যত বড় হয় তার বিদায় ততো জোরদার হওয়া দরকার। তাই দিদির হারের ব্যবধান যেন অনেক বেশি হয়।”

আরও পড়ুন :

এখানেই শেষ নয় এর পাশাপাশি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পায়ের চোট নিয়েও খোঁচা দেন অমিত শাহ। তিনি বলেন, “২ মে’র আগে দিদির পা ঠিক হতে হবে। যেন দিদি ঐদিন পায়ে হেঁটে ইস্তফা দিতে পারেন। পাঁচ দফা নির্বাচনের পরেই দিদির গলার স্বর বদলে গেছে।”