Cloud Kitchen Business: ঘরে বসেই রোজ ৩০০০ টাকা রোজগারের সুযোগ! জোমাটো খুলে দিল ব্যবসার নতুন পথ

Antara Nag

Published on:

Earn thousands of rupees per month by doing Cloud Kitchen business at home: বর্তমানে চাকরির পাশাপাশি অনেকেই ব্যবসা করতে চান। আবার এমন অনেক মহিলাদেরও দেখা যায় যারা সংসারের সব কাজ সামলানোর পর নিজেরা কিছু করার চেষ্টা করেন। তাদের জন্যই আজকের এই প্রতিবেদনটি। আমাদের ঘরে প্রতিদিনই মা-কাকিমারা রান্না করে থাকেন। এই রান্না যদি একটু বেশি পরিমাণে করে অন্য ঘরে ঘরে পৌঁছানো যায়, তবে একদিকে যেমন ঘরের খাবার খাওয়ার সুযোগ পাবেন অনেকে, অপরদিকে মা-কাকিমারাও নিজেদের চেষ্টায় কিছু করার সুযোগ পাবেন। তাই আজকের প্রতিবেদনে বলবো কিভাবে আপনি যে ক্লাউড কিচেন (Cloud Kitchen Business) তৈরি করে ব্যবসা করতে পারেন।

এখন দোকানে গিয়ে খাবার ভিড় যেমন বাড়ছে, তেমনি বাড়ছে অনলাইনে খাবার অর্ডারে দৌড়াত্ম্য। সুইগি, জোমাটো ইত্যাদি অনলাইন অ্যাপগুলির মাধ্যমে প্রচুর পরিমাণে প্রতিদিন খাবার অর্ডার করা হয়ে থাকে। আপনার যদি রান্না করার শখ থাকে এবং আপনি যদি আপনার ঘরের রান্না বাদেও আর পাঁচটি লোকের রান্না করতে সক্ষম হন, তবে অনায়াসে একটি ক্লাউড কিচেন (Cloud Kitchen Business) তৈরি করে জোমাটাতে রেজিস্টার করে পয়সা রোজগার করতে পারেন।

কিভাবে ক্লাউড কিচেনটি খুলবেন ভাবছেন?

আপনার রান্নাঘরে যদি পর্যাপ্ত পরিমাণ জায়গা থাকে এবং আপনি যদি বাইরের লোকেদের জন্য রান্না করতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন, তবে আপনি খুব সহজে একটি ক্লাউড কিচেন তৈরি করতে পারেন। এই কিচেনটি তৈরি করার জন্য আপনার অতিরিক্ত জায়গায় প্রয়োজন হয় না। আপনার রান্নাঘর থেকেই আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। কাস্টোমার যেরকম অর্ডার দেবে সেই অনুযায়ী কাঁচামাল মজুদ করে আপনাকে খাবারের আইটেম তৈরি করে ডেলিভার করতে হবে। এর জন্য আপনাকে একটি নাম বেছে নিতে হবে এবং অবশ্যই ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার বা FSSAI রেজিস্টার করে নিতে হবে। মাত্র ১৫০০ টাকা খরচ করেই এই কাজটি সম্পন্ন করতে পারবেন।

এবার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে ক্লাউড পিছনের মাধ্যমে কিভাবে টাকা উপার্জন করবেন?

প্রথমত আপনি যদি আপনার কাউকে সঙ্গে রেজিস্টার করেন, তবে জোমাটোর মাধ্যমে ১৫ শতাংশ কমিশন পেয়ে যাবেন। এছাড়া আপনার রান্নার খরচ, কাঁচামালের খরচ হিসাব করে প্রতিটি খাবারের আইটেমের একটি দাম নির্ধারণ করবেন। সেই দামের উপর আপনার লাভ থাকবে। যদি খাবার পিছু ১০০ টাকা করেও লাভ হয় এবং প্রতিদিন প্রায় ৩০ টার মতো অর্ডার হয় তবে মাস গেলে প্রায় ৯০,০০০/- টাকা লাভ হতে পারে খুব অনায়াসেই। ভালো মানের খাবার তৈরি করে তা জোমাটোর মাধ্যমে বিক্রি করে লাখ টাকা পর্যন্ত উপার্জন করা যেতে পারে।

আরও পড়ুন 👉 Pradhanmantri Awas Yojana: জল, বিদ্যুৎ ও গ্যাস নিয়ে চিন্তার দিন শেষ! এই ৩ কোটি পরিবার পাবে বিশেষ সুবিধা

দ্বিতীয় প্রশ্ন হল কিভাবে ক্লাউড কিচেনকে (Cloud Kitchen Business) জোমাটোর সঙ্গে রেজিস্টার করাবে?

  1. FSSAI লাইসেন্সের একটি জেরক্স
    GST নম্বর
    আপনার প্যান কার্ডের জেরক্স,
    ব্যাঙ্ক পাশবুকের জেরক্স,
    সবচেয়ে ভালো পাঁচটি আইটেমের ফটো
    রেস্টুরেন্টের মত খাবারের আইটেম

উপরোক্ত জিনিস করে থাকলে আপনি জোমাটোর সঙ্গে রেজিস্টার করতে পারবেন। যদি আপনি সময় মত সঠিক খাবার ডেলিভারি করতে পারেন তবে ধীরে ধীরে আপনি ক্লাউড কিচেনের ব্যবসা (Cloud Kitchen Business) থেকে বড় রেস্তোরাঁ খোলার সুযোগ পাবেন।