Vande Bharat Sleeper: আসছে দশ দশটি বন্দে ভারত স্লিপার, চলবে এই সকল রুটে

নিজস্ব প্রতিবেদন : দেশের কোটি কোটি মানুষ রেল পরিষেবার ওপর নির্ভর করে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গা যাতায়াত করে থাকেন। বিপুলসংখ্যক এই যাত্রীদের কথা মাথায় রেখে রেলের তরফ থেকে প্রতিনিয়ত রেল পরিষেবাকে আরও সাজিয়ে তোলার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। ভারতীয় রেলের (Indian Railways) এই সকল প্রচেষ্টাতেই রেল ট্র্যাকে নেমেছে বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের (Vande Bharat Express) মত ট্রেন।

বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ট্রেনের মতো এবার খুব তাড়াতাড়ি রেল ট্র্যাকে নামতে চলেছে বন্দে ভারত স্লিপার (Vande Bharat Sleeper)। সূত্র মারফত যা খবর পাওয়া যাচ্ছে তাতে বন্দে ভারত স্লিপারের জন্য আর বেশি দিন অপেক্ষা করতে হবে না দেশবাসীদের। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী মার্চ মাসেই বন্দে ভারত স্লিপার ট্রেনের যাত্রা শুরু হয়ে যেতে পারে।

আগামী মার্চ মাসে বন্দে ভারত স্লিপারের যাত্রা শুরু হওয়ার জল্পনা ছড়াতেই দেশের মানুষদের মধ্যে চরম কৌতুহল, দেশে প্রথম কোন রুটে ছুটবে এই ট্রেনটি। দেশে এই মুহূর্তে ৩৯ টি বন্দে ভারত চলাচল করে আর দুটি বন্দে ভারতকে রিজার্ভ হিসাবে রাখা হয়েছে। তবে এই সকল ট্রেনের প্রতিটি চেয়ারকার অর্থাৎ যাত্রীদের বসে বসে যাতায়াত করতে হয়। কিন্তু বন্দে ভারত স্লিপার চালু হলে যাত্রীরা শুয়েও যাতায়াত করতে পারবেন।

আরও পড়ুন 👉 Vande Bharat Metro: আর মাত্র কয়েক দিনের অপেক্ষা, আসছে বন্দে মেট্রো, ছুটবে বিশাল গতিতে

বন্দে ভারত স্লিপার ট্রেনের বিষয়ে রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব সম্প্রতি চৌপালে বড় ঘোষণা করেছেন। বন্দে ভারত স্লিপার বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ট্রেনের তুলনায় অনেক দূরপাল্লার রুটে যাতায়াত করবে। এই সকল ট্রেনগুলি দিনের পাশাপাশি রাতেও যাতায়াত করবে। যে কারণে স্লিপার ক্লাস থাকা অত্যন্ত জরুরি। বন্দে ভারত স্লিপার ট্রেন চালানোর জন্য প্রধান রুট হিসাবে দিল্লি-হাওড়া ও দিল্লি-মুম্বাইয়ের মধ্যে প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গিয়েছে সূত্র মারফত।

এই সকল রুটে যাত্রী সংখ্যা অনেক বেশি থাকার কারণে সব সময় ট্রেনের টিকিটের চাহিদা তুঙ্গে থাকতে দেখা যায়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এই সকল রুটকে বেছে নেওয়া হয়েছে বলেই জানা যাচ্ছে। ১০টি বন্দে ভারত স্লিপার ট্রেন খুব তাড়াতাড়ি চালানোর জন্য জোর প্রস্তুতি চালাচ্ছে রেল। এই সকল ১০টি বন্দে ভারত স্লিপার দিল্লি-হাওড়া, দিল্লি-মুম্বাই রুট ছাড়াও দিল্লি-বেঙ্গালুরু, দিল্লি-চেন্নাই, দিল্লি-গুয়াহাটি, দিল্লি-ভুবনেশ্বর, দিল্লি-পটনা রুটে চলতে পারে বলে সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে।