ধরে রাখতে নাছোড়বান্দা, আদালতে রোশন, পাত্তা পাওয়া গেল না শ্রাবন্তীর

রেস্টিটিউশন অব কনজুগাল রাইটস অর্থাৎ বৈবাহিক অধিকারের পুনঃপ্রতিষ্ঠা ধারায় আদালতে মামলা করেছেন রোশন সিং।

নিজস্ব প্রতিবেদন : গত বছর দুর্গা পুজোর সময় থেকে এক ছাদের তলায় থাকেন না শ্রাবন্তী রোশন। তবে তাদের এখনো পর্যন্ত আইনি বিচ্ছেদ হয়নি। এমত অবস্থায় আইনি বিচ্ছেদও চাইছেন না শ্রাবন্তীর তৃতীয় স্বামীর রোশন সিং। তাকে ধরে রাখতে একেবারে নাছোড়বান্দা অবস্থা। এমনকি সংসার টিকিয়ে রাখার জন্য আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি।

জানা গিয়েছে, রেস্টিটিউশন অব কনজুগাল রাইটস অর্থাৎ বৈবাহিক অধিকারের পুনঃপ্রতিষ্ঠা ধারায় আদালতে মামলা করেছেন রোশন সিং। বুধবার এই মামলার শুনানির কথা ছিল শিয়ালদাহ আদালতে। এমনকি এই শুনানি নিয়ে সমনও পাঠানো হয়েছিল শ্রাবন্তী চ্যাটার্জীকে। কিন্তু সেই সকলকে কোনরকম পাত্তাই দিলেন না অভিনেত্রী।

সমন গ্রহণ করার পরেও আদালতে এদিন দেখা যায়নি শ্রাবন্তীকে। এর পরিপ্রেক্ষিতে একটি সংবাদপত্রে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী জানা যাচ্ছে, তার আইনজীবী আদালতে উপস্থিত হয়ে জানিয়েছেন, তার মক্কেলকে ভুল সমন পাঠানো হয়েছিল। আর এই কারণে আদালতে উপস্থিত হননি অভিনেত্রী।

তবে এদিন শ্রাবন্তীর আইনজীবী আদালতের কাছে আবেদন করেছেন শুনানির জন্য নতুন দিন প্রার্থনা করে। পাশাপাশি নতুন করে সমন পাঠানোর আবেদনও জানিয়েছেন। পরবর্তী শুনানির দিন দুই পক্ষের বক্তব্য শোনার পরেই মামলা কোন দিকে এগোচ্ছে তাই এখন দেখার।

টলি অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চ্যাটার্জী খুব অল্প বয়সেই বিয়ে করেছিলেন রাজীব বিশ্বাসকে। তবে তাদের এই সম্পর্কে মধুরতা ছিল না বললেই চলে। দীর্ঘদিন ধরে বিচ্ছেদ থাকার পর অবশেষে ২০১৬ সালে আইনি বিচ্ছেদ হয়। সেই বছরই মডেল কিষাণ বিরাজকে বিয়ে করেন নায়িকা। কিন্তু তাও টেকেনি একবছর। এরপর ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাসে আইনে বিচ্ছেদের পর কয়েক মাসের মধ্যেই তিনি বিয়ে করেন রোশন সিংকে। তবে এখানেও সেই একই ঘটনা।