Indian Railways Stolen Case: মোটা টাকায় টিকিট কেটেও শান্তি নেই! রেলে দিন দিন চুরি বাড়ছে এসি কামরায়

নিজস্ব প্রতিবেদন : চিকিৎসা, ভ্রমণ বা কাজের জন্য ছুটে যাওয়া হোক অথবা অন্য কোন কারণ, ভারতের মতো দেশের অধিকাংশ মানুষ ট্রেনে চড়েই এক জায়গা থেকে অন্য জায়গা যেতে বেশি পছন্দ করেন। ট্রেনে যাতায়াত করার ক্ষেত্রে খরচ অনেক কম হওয়ার পাশাপাশি স্বাচ্ছন্দ অনেকটাই, আর এসবের কারণেই অধিকাংশ মানুষই ট্রেনকে বেছে নেন সফরের জন্য।

ভারতীয় রেলে (Indian Railways) সফর করার ক্ষেত্রে যাত্রীদের জন্য সাধারণ শ্রেণী থেকে শুরু করে এসি কামরার টিকিট প্রদান করা হয়। পাশাপাশি যাত্রীদের সুরক্ষার জন্য রাখা হয় পর্যাপ্ত সুরক্ষা ব্যবস্থা। কিন্তু তারপরেও বিভিন্ন সময় ট্রেনে সফররত যাত্রীদের জিনিসপত্র চুরির ঘটনা (Indian Railways Stolen Case) ঘটে থাকে। আর এই সকল ঘটনায় বেগ পেতে হয় যাত্রীদের।

ট্রেনে সফর করার সময় চুরির যে সকল ঘটনা গত কয়েক বছরে ঘটেছে এবং অভিযোগ দায়ের হয়েছে, চারদিকে নজর রাখলে যাত্রীদের রীতিমতো অবাক হতে হবে। অবাক হওয়ার পিছনে মূল কারণ হলো, চুরির ঘটনা বেড়েছে মূলত তুলনামূলক অনেক বেশি সুরক্ষিত এসি কামরায়। গত কয়েক বছরে ধারাবাহিকভাবে এসি কামরায় চুরির ঘটনা বেড়েছে বলেই জানা যাচ্ছে রেলে করা অভিযোগের সংখ্যা থেকে।

আরও পড়ুন 👉 Railway Timetable: রেলের টাইম টেবিলে কেন ২৪ ঘন্টা ফরম্যাটের ব্যবহার হয়! রয়েছে এই সব কারণ

যাত্রীদের জিনিসপত্র চুরি হওয়ার বিষয়ে ভারতীয় রেলের কাছে যে সকল অভিযোগ দায়ের হয়েছে, সেই অভিযোগের পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, ২০২০ সালে ভারতীয় রেলে মোট ৩৭টি চুরির অভিযোগ জমা পড়েছিল। ২০২১ সালে এই সংখ্যাটা একলাফে বেড়ে দাঁড়িয়েছিল ৫৭১। ২০২২ সালে এই সংখ্যা আরো কিছুটা বেড়ে দাঁড়ায় ৬৯৯। ২০২০ সালে সংখ্যাটা কম থাকার পিছনে মূল কারণ হলো করোনা অতিমারির কারণে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকা।

রেল কর্মীদের থেকে জানা গিয়েছে, লিখিত অভিযোগ দায়ের না হওয়া এমন চুরির সংখ্যা অনেক বেশি। সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো, যত চুরির অভিযোগ দায়ের হয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি এসি টু টায়ার এবং এসি থ্রি টায়ার কামরায়। এমন পরিসংখ্যান সামনে আসার পর ওই সকল কামরায় যে সকল যাত্রীরা সফর করেন তাদের আরও বেশি সতর্ক থাকতে হবে। অন্যদিকে রেল যাত্রীদের তরফ থেকে এই সকল কামরায় আরও বেশি সুরক্ষা বৃদ্ধি করার দাবিও তোলা হয়েছে।