বিজ্ঞাপন

‘ছদ্মবেশী নায়ক আমি’, মিলন কুমার গাইলেন উদিত নারায়ণের গান, শুনলে মন জুড়িয়ে যাবে

বিজ্ঞাপন

নিজস্ব প্রতিবেদন : সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে যারা ভাইরাল হয়ে সেলিব্রেটি হয়ে উঠেছেন তাদের মধ্যে প্রথম সারিতে যাদের নাম আসে তারা হলেন রানু মন্ডল, ভুবন বাদ্যকর এবং মিলন কুমার (Milan Kumar)। এই তিনজনের মধ্যে রানু মন্ডল, ভুবন বাদ্যকর এখন হারিয়ে গেলেও নিজেদের আধিপত্য বজায় রেখেছেন মিলন কুমার।

বীরভূমের ভাইরাল সংগীত শিল্পী ভুবন বাদ্যকরের মতই পূর্ব বর্ধমানের মিলন কুমার প্রতিনিয়ত নতুন নতুন গান রেকর্ডিং করে চলেছেন বিভিন্ন স্টুডিওতে। এক সময় যার গান গাওয়ার মঞ্চ ছিল লোকাল ট্রেন, সেই মিলন কুমার এখন গান গাওয়ার জন্য মঞ্চ হিসাবে পেয়েছেন স্টুডিও, বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মঞ্চ, সোশ্যাল মিডিয়া।

বিজ্ঞাপন

পূর্ব বর্ধমানের নিত্যানন্দপুরের মিলন কুমার অত্যন্ত দুঃস্থ-দরিদ্র পরিবার থেকে উঠে আসা একজন শিল্পী। সেরকম প্রথাগত কোন প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষা না নিয়েও তিনি যেভাবে গান করেন তাতে যেন তার গলায় বিরাজ করছেন খোদ সরস্বতী। তবে বড় একটা সময় তাকে রোজগারের জন্য এই গান লোকাল ট্রেনে বিক্রি করতে হয়েছে। অবশেষে একদিন তার গান ভাইরাল হওয়ার পর তিনি যেন শিল্পীর মর্যাদা পান।

বিজ্ঞাপন

মিলন কুমার এমন একজন শিল্পী যিনি প্রথম প্রয়াত বিখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী কে কে-এর গান গেয়ে সবার নজরে এসেছিলেন। এরপর তিনি বিভিন্ন জায়গায় গান করার সুযোগ পান। তবে লক্ষ্য করলে দেখা যাবে, ভাইরাল হওয়া অন্যান্য প্রায় সমস্ত শিল্পীদের থেকে মিলন কুমারের মধ্যে রয়েছে আলাদা একাধিক গুণ। মিলন কুমার ভাইরাল শিল্পী হলেও তার যথেষ্ট জ্ঞান রয়েছে গান সম্পর্কে। আর যে কারণেই অন্যান্য ভাইরাল শিল্পীরা হঠাৎ হারিয়ে গেলেও মিলন কুমার কিন্তু হারিয়ে যাননি।

মিলন কুমার এখনো বিভিন্ন মঞ্চে নিজের গান গেয়ে বেড়াচ্ছেন। সম্প্রতি তিনি একটি অনুষ্ঠান মঞ্চে গেয়েছেন ‘ছদ্মবেশী নায়ক আমি’ গানটি। বাংলা মন মানে না সিনেমার জনপ্রিয় এই গানটি ১৯৯২ সালে গিয়েছিলেন উদিত নারায়ণ। ৩১ বছর পর সেই গান যেভাবে মিলন কুমার গিয়েছেন তা দেখে খুশি তার অনুরাগীরা। এই গান মিলন কুমারের কন্ঠে শুনে তাদের মন জুড়িয়ে গিয়েছে বলেও দাবি করেছেন। অনেকে আবার হুবুহু উদিত নারায়ণের মত গাইতে সক্ষম হয়েছেন মিলন কুমার বলেও দাবি করেছেন।