Lakhpati Didi Documents: লাখ লাখ টাকা আয়! কেন্দ্র সরকারের লাখপতি দিদি হতে লাগবে এই সব ডকুমেন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদন : কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে দেশের নাগরিকদের জন্য বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের প্রকল্প (Government Scheme) চালু করা হয়ে থাকে। ঠিক সেই রকমই সরকারের তরফ থেকে দেশের মহিলাদের স্বনির্ভর করে তোলার জন্য একটি প্রকল্প লঞ্চ করা হয়েছে আর তার নাম হলো লাখপতি দিদি (Lakhpati Didi)। ইতিমধ্যেই এই প্রকল্পের আওতায় প্রায় দু’কোটি মহিলাকে যুক্ত করা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। আগামী দিনে তিন কোটি মহিলাকে যুক্ত করা হবে বলেও কেন্দ্রের পরিকল্পনা।

কেন্দ্র সরকারের এই প্রকল্প মহিলাদের ক্ষমতায়ন করার জন্য সরকারের তরফ থেকে সঠিকভাবে স্কিল ডেভেলপমেন্ট ট্রেনিং দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়ে থাকে। এই প্রকল্পের মধ্য দিয়ে মহিলাদের ব্যাংক পরিষেবা থেকে শুরু করে অঙ্গনওয়াড়ি মেডিসিন ইত্যাদি পরিষেবার প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মাধ্যমে এই প্রকল্পের ট্রেনিং দেওয়া হয়ে থাকে। এছাড়াও এলইডি বাল্ব, প্লাম্বিং, ড্রোন ইত্যাদি মেরামত করার জন্য ট্রেনিং দেওয়া হয়।

কেন্দ্র সরকারের পরিকল্পনা রয়েছে দেশের মহিলাদের স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মাধ্যমে এমন নানান বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে তাদের স্বনির্ভর করে তোলা। এই প্রশিক্ষণ আবার ভিত্তি হল প্রশিক্ষণ হয়ে থাকে। সুতরাং কেন্দ্রীয় সরকারের এই প্রকল্প দেশের মহিলাদের স্বনির্ভর হওয়ার ক্ষেত্রে যে পথ দেখাচ্ছে তা অতুলনীয় বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। আর এই প্রকল্পের কথা শুনে অনেক মহিলা এই প্রকল্পে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করছেন।

আরও পড়ুন 👉 Lakhpati Didi Yojana: লক্ষ্মীর ভাণ্ডার ফেল! এবার মহিলাদের লাখপতি বানাতে নয়া পরিকল্পনা কেন্দ্রের

তবে অনেকেই এই প্রকল্পে কিভাবে আবেদন করতে হবে তা সম্পর্কে জানেন না, আবার অনেকেই রয়েছেন যারা এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্য কি কি ডকুমেন্ট অর্থাৎ নথি (Lakhpati Didi Documents) লাগবে সেই সম্পর্কেও জানেন না। এই প্রকল্পে আবেদন করার ক্ষেত্রে স্বনির্ভর যে সকল কেন্দ্র সরকারি সংস্থা রয়েছে সেগুলির মাধ্যমে প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করা যাবে।

তবে এই প্রকল্পে নাম নথিভূক্ত করার আগে মহিলাদের স্কিল ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের অংশ হতে হবে। এর সঙ্গে যুক্ত হওয়ার জন্য মহিলাদের কাছে আধার কার্ড, প্যান কার্ড, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের ডকুমেন্ট, রোজগারের শংসাপত্র, রেশন কার্ড থাকতে হবে। এই প্রকল্পের মধ্য দিয়ে লাখপতি দিদিরা স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মাধ্যমে তাদের তৈরি সামগ্রী বা পরিষেবার জন্য ছোট ছোট ব্যবসা খুলতে পারবেন। যেখান থেকে বছরে লক্ষ লক্ষ টাকা রোজগারের সুযোগ রয়েছে।