সিনে স্টাইলে কৃষক বিক্ষোভের মাঝে জলকামান বন্ধ করে হিরো যুবক

নিজস্ব প্রতিবেদন : হরিয়ানায় কৃষক বিক্ষোভ চলাকালীন দেখা গেল এমন এক দৃশ্য যা সিনে জগতের থেকে কোন অংশে কম নয়। কয়েকশো পুলিশ বিক্ষোভরত কৃষকদের আটকাতে তৎপর, নামানো হয়েছে জলকামান। আর সেই জলকামানের জল যখন তীব্র গতিতে কৃষকদের কাছে আসছে তখন এক কৃষক নেতা ছেলে সিনে স্টাইলে ওই জলকামানের উপর উঠে জলকামানটিকেই বন্ধ করে দেন। আর এই ঘটনার পর তিনি হিরো হয়ে ওঠেন কৃষকদের কাছে। তবে জলকামান বন্ধ করার জন্য ওই কি সব নেতার ছেলের বিরুদ্ধে হরিয়ানা পুলিশ মামলা রুজু করেছে।

যে যুবক এমন সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন তার নাম নবদীপ সিং। বিক্ষোভরত কৃষক সংগঠনের দিল্লিগামী কৃষক নেতা জয় সিংয়ের তিনি ছেলে বলে জানা গিয়েছে। ২৬ বছর বয়সী এই যুবক হরিয়ানার আম্বালার বাসিন্দা। নবদীপের এমন সাহসিকতার পরিচয় দেওয়ার পর সেই কর্মকাণ্ডের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। যে ভিডিওটি দেখে সোশ্যাল নাগরিকরা ওই যুবককে বাহবা জানিয়েছেন।

সোশ্যাল নাগরিকদের ওই যুবককে বাহবা জানানোর মূলে রয়েছে, দিল্লি হরিয়ানার মত এলাকায় বর্তমান সময়ে প্রচন্ড ঠান্ডা। আর এই ঠান্ডার সময় কৃষকদের ছত্রভঙ্গ করতে যেভাবে জলকামান থেকে জল ছোড়া হচ্ছিল তা বেশিরভাগ নেটিজেনরাই মেনে নিতে পারেননি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ভিডিওটিতে দেখা গিয়েছে, দিল্লিগামী বিক্ষোভরত কৃষকরা যখন সমস্ত রকম বাধা-বিপত্তিকে অতিক্রম করে নিজেদের লক্ষ্যে অবিচল তখন হরিয়ানা পুলিশ তাদের আটকানোর জন্য জলকামান থেকে তীব্র গতিতে জল নিক্ষেপ করতে থাকে। আর সে সময় ওই যুবক পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে জলকামানের উপর উঠে যান। তারপর জলকামান বন্ধ করে চাপ দিয়ে অন্য গাড়িতে করে মিশে যান বিক্ষোভরত কৃষকদের সাথে।

তবে কৃষক এবং সোশ্যাল নেটিজেনদের কাছে ওই যুবক হিরোতে পরিণত হলেও পুলিশের কাছে তিনি একজন অপরাধী। যে কারণে তার বিরুদ্ধে হরিয়ানা পুলিশ জামিন অযোগ্য ধারায় বেশ কয়েকটি মামলা রুজু করেছে। আর এই সকল মামলায় যদি নবদীপ দোষী সাব্যস্ত হন তাহলে তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে।